১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিয়ের পর কেন পদবি বদল নবদম্পতির? প্রশ্নের মোক্ষম জবাব সোনমের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 18, 2018 3:19 pm|    Updated: August 21, 2018 8:59 pm

Sonam Kapoor draws flak for changing name after marriage

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঘটা করে বিয়ে করেছেন। অনুষ্ঠানে শামিল হয়েছে গোটা বলিউড। রাতভর চলেছে সে পার্টি। তারপর আবার কান চলচ্চিত্র উৎসবের রেড কার্পেটেও হেঁটেছেন সোনম কাপুর। এর মাঝেও বিতর্ক পিছু ছাড়েনি নায়িকার। বিয়ের পর নিজের পদবি পরিবর্তন করেছিলেন সোনম। এর জন্যই তাঁকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছিলেন অনেকে। প্রশ্ন তুলেছিলেন, নারীবাদের হয়ে একাধিকবার সওয়াল করা নায়িকা কেন স্বামীর পদবি গ্রহণ করলেন? প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে নিজের নাম পরিবর্তন করে বসেন আনন্দও। নামের জায়গায় লেখেন আনন্দ এস আহুজা। এর পর নয়া মোড় নেয় বিতর্ক। নাম পরিবর্তনের জন্য অনেকের প্রশংসা পেলেও, কয়েকজনের রোষের পাত্র হয়েছেন তিনি। আর এর জন্যও সোনমকেই কথা শুনতে হয়েছে।

sonam-1q

anand

[ধর্ষণ নিয়ে মশকরায় হেসেই খুন, নেটদুনিয়ায় সমালোচনার মুখে কঙ্গনা]

যাবতীয় বিতর্কের জবাব দিয়েছেন অভিনেত্রী। এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, কাপুর পদবিটিও তাঁর বাবারই ছিল। অর্থাৎ তা একজন পুরুষেরই। বিয়ের পর তাঁকে পদবি বদলের জন্য কেউ জোর করেনি। এ সিদ্ধান্ত তিনি নিজে থেকেই নিয়েছেন। আনন্দও একই কাজ করেছেন। আর সেটিও তাঁরই ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। তাঁর জীবনের যাবতীয় সিদ্ধান্ত তাঁরই। হ্যাঁ, ভালবেসে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তা বিশ্বকে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জানিয়েছেন। আর এটাই নারীত্বের জয়। এতে কারও কোনও মন্তব্য করার কিংবা উপদেশ দেওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই।

শ্বশুরবাড়ি লন্ডনে। তাহলে বিয়ের পর কোথায় থাকবেন অভিনেত্রী? এই প্রশ্নও উঠেছিল। তারও উত্তর দেন নায়িকা। তিনি জানান, গত দুই বছর ধরে এই জীবনে অভ্যস্ত তিনি। পাঁচ মাস লন্ডনে থাকেন। আর বাকি সময়টা মুম্বইয়ে থেকে কাজ করেন। একথা অনেকেরই অজানা ছিল এতদিন। এখন কেবল আনুষ্ঠানিক বিয়ে হয়েছে মাত্র। ফলে এমন জীবনে কোনও অসুবিধা নেই তাঁর।

[মেয়ে আরাধ্যাকে চুমু খেয়েও নেটদুনিয়ার রোষের মুখে ঐশ্বর্য, কিন্তু কেন?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে