২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অর্ণব আইচ: ক্যাবে হেনস্তার শিকার হওয়া সত্বেও কর্মব্যস্ততায় থানায় যেতে পারেননি অভিনেত্রী। খবর পেয়ে দাসানি স্টুডিওয়ে গিয়ে অভিযোগ নথিভুক্ত করলেন তিলজলা থানার পুলিশ। বুধবার সকালে স্টুডিওয়ে যাওয়ার পথে ক্যাবে হেনস্তার শিকার হন স্বস্তিকা দত্ত। অভিযোগ, গন্তব্যের উলটোদিকে নিয়ে গিয়ে, মাঝপথেই জোর করে তাঁকে গাড়ি থেকে নামিয়ে দেন ক্যাব চালক। প্রতিবাদ করায় তাঁকে শারীরিকভাবে হেনস্তা করা হয় বলেও অভিযোগ উঠেছে ক্যাব চালকের বিরুদ্ধে। পাশাপাশি মারধর করা হয়েছে তাঁর বাবাকেও। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে ইএম বাইপাসের পঞ্চান্ন গ্রামের কাছে। ঘটনার কিছুক্ষণের মধ্যেই পুলিশের জালে ধরা পড়েছে অভিযুক্ত ক্যাব চালক।

[আরও পড়ুন: উল্টোডাঙা উড়ালপুল বন্ধ থাকায় বাড়ছে যানজট, জেনে নিন বিকল্প রাস্তাগুলি]

জানা গিয়েছে, বুধবার সকালে স্টুডিওয়ে যাওয়ার জন্য ক্যাব বুক করেন স্বস্তিকা দত্ত। পিকনিক গার্ডেনের বাড়ি থেকে ক্যাবে ওঠেন স্বস্তিকা। অভিযোগ, টালিগঞ্জের কাছে স্টুডিও অবধি পৌঁছানোর আগে মাঝপথেই তাঁকে জোর করে গাড়ি থেকে নামিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন ক্যাব চালক। এর প্রতিবাদ করলে গাড়ি ঘুরিয়ে অভিনেত্রীকে উলটো পথে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন চালক। এমনকী জোর করে অভিনেত্রীকে অন্য জায়গায় নিয়েও যায় অভিযুক্ত। গাড়িতেই অভিনেত্রীকে শারীরিক হেনস্তা করা হয় বলেও অভিযোগ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছালে মারধর করা হয় তাঁর বাবাকেও। 

ঘটনার কিছুক্ষণ পর ফেসবুকে একটি পোস্ট করেন স্বস্তিকা। সেখানে লেখেন, “আটটা পনেরো নাগাদ জামশেদ নামে এক ক্যাব চালকের সঙ্গে স্টুডিও যাওয়ার জন্য রওনা হয়েছিলাম। ক্যাব-চালক মাঝপথে আমাকে নামিয়ে দেওয়ার হুমকি দেন। জানিয়ে দেন, আমি যেখানে যাব, তিনি সেখানে যাবেন না। এরপর গাড়ি থেকে নেমে পিছনের সিটের দরজা খুলে হাত ধরে জোর করে অভিনেত্রীকে নামানোর চেষ্টা করেন জামশেদ।” এমনকী অশালীন ভাষাও প্রয়োগ করা হয় তাঁর বিরুদ্ধে৷ তাঁর পোস্টের মাধ্যমেই প্রকাশ্যে আসে গোটা ঘটনা। 

SWASTIKA-POST

[আরও পড়ুন: বিজেপিতে যোগ দিলেন রাহুল-মমতা! বিতর্কিত ছবি ঘিরে শোরগোল রাজনৈতিক মহলে]

এ প্রসঙ্গে স্বস্তিকার বাবা জানিয়েছেন, ‘‘ওই ঘটনার সময়েই মেয়ে আমাকে ফোন করে। তড়িঘড়ি গাড়ি নিয়ে পৌঁছাই সেখানে। ঝামেলা মিটিয়ে মেয়েকে আমার গাড়িতে তুলেই স্টুডিওয়ে পৌঁছে দিই। খুব গুরুত্বপূর্ণ শুটিং ছিল বলে তখনই পুলিশকে অভিযোগ জানাতে পারিনি।’’ বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই দাসানি স্টুডিওয়ে গিয়ে অভিযোগ নথিভুক্ত করে তিলজলা থানার পুলিশ। অভিনেত্রীর তরফে বিষয়টি জানানো হয়েছে অরূপ বিশ্বাসকেও। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই পুলিশের জালে ধরা পড়েছে অভিযুক্ত ক্যাব চালক। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ।  

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং