১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বিমানবন্দরে চূড়ান্ত হেনস্তার শিকার, চোখে জল এই পাক অভিনেত্রীর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 18, 2018 6:14 am|    Updated: September 17, 2019 4:24 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাজের সূত্রে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছে যেতে হয় তাঁকে। কিন্তু সব দেশের বিমানবন্দরেই একইভাবে হেনস্তার শিকার হতে হয় তাঁকে। কেন? তিনি পাকিস্তানি বলে? চূড়ান্ত হতাশ ও মানসিকভাবে বিধ্বস্ত হয়ে পড়ার পর প্রশ্ন করছেন পাক অভিনেত্রী সাবা কামার

[মুক্তির এত মাস পর আরও এক পালক জুড়ল ‘বাহুবলী ২’-এর মুকুটে]

গত বছর অভিনেতা ইরফান খানের বিপরীতে এই পাক অভিনেত্রীকে দেখা গিয়েছিল ‘হিন্দি মিডিয়াম’ ছবিতে। পাশাপাশি ‘উড়ান’, ‘আয়না’ ছবিতেও অভিনয় করেছিলেন তিনি। তারপর থেকে এ দেশেও বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন তিনি। সেই সাবাই সম্প্রতি একটি পাকিস্তানি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে প্রাণ খুলে কথা বললেন। সেখানেই পাক নাগরিক হওয়ার যন্ত্রণার কথা বেরিয়ে আসে তাঁর মুখ থেকে। তিনি বলেন, “দুনিয়ার প্রত্যেকটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যেভাবে নিরাপত্তারক্ষীরা আমাকে চেক করেন, যেভাবে আমার সারা গায়ে হাত দেওয়া হয়, তা অত্যন্ত অপমানজনক।” জর্জিয়ায় নিজের এক অভিজ্ঞতার কথাও জানান তিনি। বলেন, “একটা ছবির জন্য বিলিসিতে গিয়েছিলাম। আমার সঙ্গে সব ভারতীয়রা ছিলেন। তাঁদের সবাইকে ছেড়ে দেওয়া হল। শুধু আমাদের আটকে দিল। শুধুমাত্র আমার পাসপোর্টের জন্য। কারণ আমি পাকিস্তানের নাগরিক। আমার আপাদমস্তক চেক করা হল। ইন্টারভিউ হল। তারপর ছাড়ল।” কথাগুলি বলতে বলতে চোখে জল সাবার।

[বিপাশা কি বেবি-বাম্প আড়াল করছেন? কী বললেন নায়িকা?]

সাবার বক্তব্য, “গোটা বিশ্বে আমাদের স্থান কোথায়, সারা দুনিয়া আমায় কী নজরে দেখে সেটা আমি সেদিন বুঝেছিলাম।” তাই অভিনেত্রী প্রশ্ন তুলছেন, কোথায় দাঁড়িয়ে পাকিস্তান? কোনওদিন কি এই পরিস্থিতি থেকে দেশ বেরতে পারব? লাগাতার সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপের সঙ্গে নাম জড়ায় পাক মুলুকের। পাকিস্তানের সন্ত্রাসী মনোভাব ক্রমেই তাদের কোণঠাসা করে দিচ্ছে। তা সত্ত্বেও নিজেদের ভাবমূর্তি পরিবর্তনের কোনওরকম উদ্যোগ নিচ্ছে না পাক সরকার। যার খেসারত দিতে হচ্ছে সাধারণ নাগরিকদের। তাই অভিমানী সাবা বলছেন, “আমরা পাকিস্তান জিন্দাবাদ বলি ঠিকই। কিন্তু কোথায় দাঁড়িয়ে আমরা? কী চাই?” তাঁর এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আপাতত ভাইরাল।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement