২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অভিনয়ের লোভনীয় প্রস্তাবে সায় দিয়ে অনেকেই বিপথে পা বাড়িয়েছেন এযাবৎকাল। অভিনয় হোক কিংবা মডেলিং, গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রির হাতছানিতে বোধবুদ্ধি খুইয়ে সাড়া দিয়েছেন নিশির ডাকে। আর যাঁরা ফাঁদ পেতে রাখতেন? অন্ধকার জগতের সঙ্গে হাত মিলিয়ে দিনের পর নরমাংস বিকোনোর কাজ করতেন, তাঁরা? ঠিক এরকমই এক অভিনেত্রী হাতেনাতে ধরা পড়েছেন। যিনি অভিনয়ের টোপ দিয়ে তরুণী-যুবতীদের ফাঁসাতেন। নিজের বাড়িতে এনে তারপর উদ্দাম যৌনতায় বাধ্য করতেন। একাধিক পুরুষদের সঙ্গে যৌনসঙ্গমে রাজি হলে তবেই মিলত ছাড়া।

[আরও পড়ুন: চারবার আত্মহত্যা করতে গিয়েছিলাম’, বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি মীরের ]

সুন্দরী মেয়েদের তুলে এনে নিজের বাড়িতে রেখে দিতেন জনপ্রিয় সেই অভিনেত্রী। সেখানে দিনের পর দিন সেই মেয়েগুলির উপর চলত অকথ্য যৌন অত্যাচার। তাঁদের মুখ থেকে ‘টু’ শব্দটি বেরোলেই শাস্তি হিসেবে মিলত মারধর। শেষপর্যন্ত দেহব্যবসায় রাজি হলে তবেই মিলত মুক্তি। আর যিনি এসব কাণ্ডকারখানার মূল কাণ্ডারী তিনি টেলিভিশনের খ্যাতনামা অভিনেত্রী। সম্প্রতি নিজের ডেরা থেকেই ধরা পড়েছেন তিনি। সুপারহিট টেলিভিশন সিরিজের মূল চরিত্রে অভিনয় করতেন তিনি। অভিনেত্রীর মিষ্টি চেহারায় ভুলেছিলেন অনেকেই। তাঁকে দেখে নাকি বোঝার উপায়ই ছিল না, যে নারীপাচারের মতো অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে তিনি জড়িতও থাকতে পারেন।

[আরও পড়ুন: যেমন খুশি তেমন? ওয়েব সিরিজেও এবার সেন্সরের কাঁচি পড়তে চলেছে ]

অভিযুক্ত আমেরিকান টেলিভিশন জগতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অ্যালিসন ম্যাক। বেশ অনেকগুলি সুপারহিট সিরিজে অভিনয় করেছেন তিনি। অ্যালিসন ম্যাকের মুখোশ খোলার পরই পুলিশ গ্রেপ্তার করেন তাঁকে। সম্প্রতি আমেরিকার আদালত এই ঘটনার রায় প্রকাশ করেছে। অ্যালিসনকে ২০ বছরের জেলে থাকার সাজা শুনিয়েছে আমেরিকান আদালত। অভিনেত্রীর এই শাস্তিতে খুশি হয়েছেন তাঁরা, অ্যালিসনের খপ্পরে পড়ে যাদের জীবন নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। আদালতের রায়ে স্বস্তির নিশ্বাস ফেলছেন তাঁরা। যৌনপাচারে সক্রিয়ভাবে অংশ নেওয়ার কথা নিউ ইয়র্কের আদালতে দাঁড়িয়ে নিজের মুখেই স্বীকার করে নিয়েছেন মার্কিন মুলুকের খ্যাতনামা টেলিভিশন তারকা অ্যালিসন ম্যাক। 

অ্যালিসন ম্যাক

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং