BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১১ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বান্ধবীর সঙ্গে ছবি কারিকুরি করে পর্নসাইটে! বিস্ফোরক অভিযোগ ‘দ্য বং গাই’-এর

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: June 9, 2020 9:37 pm|    Updated: June 10, 2020 9:37 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘দ্য বং গাই’য়ের ছবি পর্ন সাইটে! দু’একটা স্ক্রিনশট প্রকাশ্যে আসতেই, বিদ্যুৎ গতিতে ছড়িয়ে পড়ল এই খবর। শুধু তাই নয়, তাঁরই এক বান্ধবীর সঙ্গে ছবি এডিট করে সংশ্লিষ্ট পর্নসাইটে পোস্ট করা হয়েছে বলেও বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন কিরণ দত্ত।

পর্ন সাইটে সেই ছবির স্ক্রিনশট আসতেই নেটিজেনদের একাংশ কদর্য মন্তব্য করতেও ছাড়েনি সেসব পোস্ট করে। এমনকী কিরণকেও ফোন করে অনেকে জিজ্ঞেস করেছেন যে, “তাঁর পর্ন বেরিয়েছে কিনা!” প্রতিবেশীদের কাছেও তাঁকে এই সম্পর্কিত বিষয়ে কটু কথা শুনতে হয়েছে। প্রথমটায় সেরকম আমল না দিলেও একের পর এক কদর্য মন্তব্যের পরই এই প্রসঙ্গে মুখ খোলেন ‘বং গাই’।

কিরণের অভিযোগের তীর এক তরুণীর দিকে। যিনি এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন বলেই দাবি তাঁর। একাধিক স্ক্রিনশট শেয়ার করে একটি দীর্ঘ পোস্টে খ্যাতনামা এই ইউটিউবার তাঁর যাবতীয় ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন। কিরণ জানিয়েছেন, তাঁর এবং তাঁর এক বান্ধবীর ছবি এডিট করে একটা পর্ন ওয়েবসাইটে বসিয়ে শেয়ার করা হয়েছে। এবং যে এই কাজটি করেছেন, তিনি নিজে মজা নেওয়ার জন্যই ভুল তথ্য শেয়ার করেছেন কদর্য কাণ্ডটি ঘটিয়েছেন।

[আরও পড়ুন: মাঝরাতে চুপিচুপি চকোলেট সাবার, অন্তঃসত্ত্বা শুভশ্রীর ছবি ঝড় তুলেছে নেটদুনিয়ায়]

পাশাপাশি কিরণ এও বলেন যে, “ইতিমধ্যেই কিছু ফোন পেয়েছি যে আমার কোনও পর্ন লিক হয়ে গেছে কিনা! তার উত্তর ‘না’, এটা পুরোপুরি ফেক একটা ছবি। নেগেটিভ পাবলিসিটি কিংবা খ্যাতি পাওয়ার জন্যই নাকি আমি নিজের পর্ন বের করেছি, এসবই শুনতে হচ্ছে আমাকে।” কিরণের এই পোস্টের ভিত্তিতে অনেকেই তাঁকে আইনি পদক্ষেপ করার পরামর্শ দিয়েছেন।

মিমারদের (যাঁরা মিম বানান) কাছেও প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন ‘বং গাই’। “আমার কি করা উচিৎ সেটাও সবাই জানিও। অনেকেই বলে, সব ব্যাপারে আমার নাকি মন্তব্য করা উচিৎ না। কিন্তু জানতে পারলাম, আমার পাড়ার কিছু ছেলেমেয়ে নাকি এসব শেয়ার করে বলছে যে, আমার পর্ন বেড়িয়েছে। আমার কিছু যায় আসে না! সত্যি বলছি। আমি ইন্টারনেটে নিজের ব্যাপারে মানুষের এতো মতামত দেখি, এতো মিথ্যে কথা দেখি, আমি আর গায়ে মাখি না আজকাল! আমায় নিয়ে মিথ্যে খবর ছড়াও, কিন্তু কোনও মেয়েকে বা কাউকে তার সঙ্গে জড়িও না। আমার নিজেরই খুব অনুশোচনা হয় যে, হয়তো আমার বন্ধু না হলে এগুলো তাকে সহ্য করতে হত না। আর মিমের নামে কারও জীবন শেষ কোরো না দয়া করে”, মন্তব্য কিরণের।

[আরও পড়ুন: ‘এলাহি খরচের বদলে আমফান বিধ্বস্ত বাংলার পাশে দাঁড়ান’, পুজো উদ্যোক্তাদের বার্তা পরিচালক সুজিতের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement