১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ক্যামেরার নেপথ্যের রঙ্গ খোলসা করতে ট্রেলারে হাজির ‘চলচ্চিত্র সার্কাস’

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 13, 2017 1:41 pm|    Updated: September 13, 2017 1:47 pm

Trailer of 'Chawlochitra Circus' released

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুজোয় মুক্তি পেতে চলেছে একাধিক ছবি। কোন ছবি ব্যবসা করবে আর কোন ছবি ব্যবসা করবে না, তা নিয়ে তরজা তুঙ্গে। কিন্তু ছবি হিট করার মন্ত্র জানেন পরিচালক সূর্য। ‘ছবি চালাতে তিনটে জিনিস দরকার- নাটক, প্রেম আর গান’। গল্প যাই হোক না কেন প্রযোজকের কথা অনুযায়ী ছবিতে দরকার আইটেম সং। ছবির হিরো কে হবে, কে হবে ছবির হিরোইন, তাও অনেক সময় ঠিক করে দেন প্রযোজক। সিনেমা কীভাবে তৈরি হয় এই নিয়ে দর্শকদের উৎসাহের শেষ নেই। কিন্তু আসলে দর্শক জানেনই না ‘বাংলা সিনেমা ও বাংলা মদের মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই’। একটা সিনেমা বানাতে যে সার্কাস হয় তা দর্শকের ‘ধ্যান ধারণার বাইরে’। তাই সবাই গেয়ে ওঠে ‘ভয় হয়, কাদের পাল্লায় ফেললি আমায়’ কিংবা কোথাও কোনও খারাপ লাগা থেকে পরিচালক বলে ওঠেন ‘যতবার উড়তে চাই আকাশে, আটকে যাই চলচ্চিত্র সার্কাসে’। সিনেমার এই সার্কাসই এবার দর্শকদের জন্য বড়পর্দায় আনছেন পরিচালক মৈনাক ভৌমিক। আর উপরে উল্লিখিত সমস্ত কথাই ট্রেলারে বলতে চেয়েছেন পরিচালক।

[বিয়ের পরও ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে নেটদুনিয়া মাতালেন রিয়া সেন]

বুধবার সোশ্যাল সাইটে লাইভ আড্ডায় ছবির ট্রেলার লঞ্চ করলেন পরিচালক, সংগীত পরিচালক-সহ ছবির অভিনেতা-অভিনেত্রীরা। ছবিতে পরিচালক সূর্যর চরিত্রে দেখা যাবে ঋত্বিক চক্রবর্তীকে। একটা ছবি বানাতে গিয়ে যে কী কী ধরনের সমস্যায় পড়তে হয় একজন পরিচালককে, ঋত্বিকের মধ্যে দিয়ে যেন নিজের কথাই বলতে চেয়েছন পরিচালক। লাইভ আড্ডায় অবশ্য স্বীকারও করলেন সে কথা। ছবি বানাতে গিয়ে নানা অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়েছেন তিনি। টেনশন, মজা, খারাপ লাগা সব রয়েছে সেখানে। তবে এ ছবি রিলিজের পর প্রযোজকরা তার উপর বেজায় চটে যেতে পারেন এই আশঙ্কাও রয়েছে তাঁর। তবে সবটাই বললেন মজার ছলে। কারণ পুরো ব্যাপারটা যদি দর্শক সিরিয়াসলি নিয়ে নেন তাহলে তো সবাই ভেবে বসবেন অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তী আজ অবধি সব চরিত্রই পেয়েছেন কাস্টিং কাউচের মাধ্যমে। হাসতে হাসতে সে কথাই দর্শকদের বোঝালেন সুদীপ্তা। সুদীপ্তা ছাড়া এই ছবিতে রয়েছেন পাওলি দাম, তনুশ্রী চক্রবর্তী, পায়েল সরকার, কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, সুজন মুখোপাধ্যায়, অরিন্দম শীল, বিশ্বনাথ বসু, সোনালী চৌধুরী ও রুদ্রনীল ঘোষ। সিনেমার ভিতর যে সিনেমা তৈরি নিয়ে এত সার্কাস, সেই ছবিরই হিরো রুদ্রনীল। ছবিতে অনেকেই মোটামুটি দ্বৈত চরিত্রে। কারণ তাঁরা তো একটা নয় দুটো ছবিতে রয়েছেন। এই যেমন এই ছবির সংগীত পরিচালক অনুপম রায়, সিনেমাতেও তিনি সংগীত পরিচালক। সেখানে তিনি আর রায় নন, তিনি অনুপম চাকলাদার।

[‘সুলতান’ সলমনের ইচ্ছেতেই ‘রেস ৩’ থেকে বাদ জন আব্রাহাম!]

ট্রেলার থেকেই বোঝা যাচ্ছে ছবির প্রথম থেকে শেষ স্যাটায়ারে মুড়ে ফেলেছেন পরিচালক। বাকি আর কী কী রয়েছে ছবিতে, যার জন্য পরিচালককে নাকি কলকাতা ছেড়ে পালাতে হতে পারে (এটা অবশ্য পরিচালকের দাবি), তা জানতে অপেক্ষা ২২ সেপ্টেম্বর অবধি কারণ ঐদিনই সার্কাসের তাঁবু ফেলবেন পরিচালক মৈনাক ভৌমিক।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে