ad
ad

Breaking News

ছোটপর্দায় ভবিষ্যৎদ্রষ্টা মেয়ের কাহিনি, আসছে ‘ত্রিনয়নী’

একেবারে অন্যরকমের একটি চরিত্রে দেখতে পাওয়া যাবে ঋ-কে।

Trenayanee serial to hit small screen
Published by: Sandipta Bhanja
  • Posted:March 2, 2019 7:40 pm
  • Updated:March 2, 2019 7:40 pm

সোমনাথ লাহা: ড্রইংরুম ড্রামা, পিরিয়ড ড্রামা, মাইথলজিক্যাল ড্রামার পাশাপাশি মেগা ধারাবাহিকের অন্দরে নিজস্ব একটা জায়গা করে নিয়েছে স্পিরিচু্য়াল ড্রামা। সেই তালিকায় নয়া সংযোজন মেগা ধারাবাহিক ‘ত্রিনয়নী’। জি বাংলায় খুব শীঘ্রই শুরু হতে চলা এই মেগার বিষয়ভাবনা হল সিক্সথ সেন্স তথা ষষ্ঠ ইন্দ্রিয়ের জাগরণ। বৈজ্ঞানিক পরিভাষায় যাকে বলে ‘প্রিমনিশন’। অর্থাৎ আগে থেকে বা আগাম বিপদের আঁচ পাওয়ার মতো বিষয়। ভবিষ্যতে যে বিপদ আসতে চলেছে তার আগাম অনুভূতি পাওয়া।

[পঙ্কজ-বীরেন্দ্র বনাম হেমন্ত-উত্তম, ‘মহালয়া’য় উঠে এল অনেক অজানা ইতিহাস]

এসভিএফ (শ্রীভেঙ্কটেশ ফিল্মস)-এর ব্যানারে নির্মিত এই মেগার পরিচালক স্বর্ণেন্দু সমাদ্দার। যিনি ইতিপূর্বে ‘পটলকুমার গানওয়ালা’, ‘গোপাল ভাঁড়’, ‘রাণু পেল লটারি’-র মতো জনপ্রিয় মেগা ধারাবাহিক উপহার দিয়েছেন দর্শকদের। মেগায় মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন নবাগতা শ্রুতি দাস। শ্রুতির বিপরীতে এই ধারাবাহিকে দেখা যাবে ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা গৌরব রায়চৌধুরিকে। বর্ধমানের কাটোয়ার মেয়ে শ্রুতি বিদ্যাসাগর উইমেন্স কলেজে স্নাতক স্তরে পাঠরতা। পাশাপাশি শ্রুতি একজন ক্লাসিক্যাল ড্যন্সার। কাটোয়ার থিয়েটার গ্রুপের সঙ্গেও জড়িত। এছাড়াও, শ্রুতি একটি এনজিও সংস্থার সঙ্গেও জড়িত। অপরদিকে, গৌরবকে ইতিমধ্যেই দর্শকরা দেখেছেন ‘ভালবাসা ডট কম’, ‘বিধির বিধান’, ‘তোমায় আমায় মিলে’, ‘শুভদৃষ্টি’-র মতো জনপ্রিয় মেগা ধারাবাহিকে, দর্শকমহলে প্রশংসিতও হয়েছে তাঁর অভিনয়।

মেগার কাহিনি আবর্তিত হয়েছে এক সাধারণ পরিবারের মেয়ে ত্রিনয়নী (শ্রুতি)-কে কেন্দ্র করে। দেবী বিশালাক্ষীর আশীর্বাদধন্যা ত্রিনয়নী আগে থেকেই ভবিষ্যতে ঘটতে চলা বিপদের আগাম আভাস পায়। এক অর্থে প্রকারান্তরে জেগে ওঠে তার ষষ্ঠ ইন্দ্রিয়। এমনকী, অতীতও দেখতে পায় সে। কথা বলে মৃত মানুষদের সঙ্গেও। এহেন বিশেষ ক্ষমতাকে মানুষের ভাল কাজে ব্যবহার করতে গেলে সবাই তাকে অভিশপ্তা বলে মনে করে। দৈব আশীর্বাদ তার জীবনে ডেকে নিয়ে আসে অভিশাপ। এজন্য গ্রামও ছাড়তে হয় তাকে। অন্যদিকে, রয়েছে বিলেত ফেরত ব্যবসায়ী দৃপ্ত (গৌরব)। তার মা নেই। বাবা আবার বিয়ে করেছেন। তার পরিবার বলতে বাবা, সৎ মা, ভাই, ভাইয়ের স্ত্রী সকলেই রয়েছে। কিন্তু সম্পত্তি পাওয়ার লোভে দৃপ্তর বিরুদ্ধে চলে চক্রান্ত। আর তা আঁচ করেই ত্রিনয়নীর সাহায্য চায় দৃপ্তর মৃতা মা। ত্রিনয়নী কি পারবে দৃপ্তকে এই বিপদের হাত থেকে বাঁচাতে? তারই উত্তর মিলবে ধারাবাহিকটির প্রতিটি পর্বজুড়ে।

মেগার কাহিনি, বিষয়ভাবনা, চিত্রনাট্য লিখেছেন সাহানা দত্ত। ধারাবাহিকে অন্যান্য চরিত্রে রয়েছেন বোধিসত্ত্ব মজুমদার, দেবযানী চট্টোপাধ্যায়, আদিত্য চৌধুরি, ইন্দ্রনীল মল্লিক, ময়না মুখোপাধ্যায়, ঋ ও অন্যান্য শিল্পীরা। মেগার শ্যুটিং হয়েছে ভারতলক্ষ্মী স্টুডিও-সহ বানতলা ও হাঁড়িপোতায়। ৪ মার্চ থেকে সোম থেকে রবি প্রতিদিন রাত ৮ টায় জি বাংলায় দেখা যাবে ‘ত্রিনয়নী’।

[ইন্দো-পাক সম্পর্ক নিয়ে কমেডিয়ানের বিতর্কিত মন্তব্য, পালটা দিলেন স্বরা]

সম্প্রতি ভারতলক্ষ্মী স্টুডিওতে এক সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মেগার কাহিনি চিত্রনাট্যকার, পরিচালক-সহ শিল্পী ও
কলাকুশলীরা। এই মেগায় একেবারে অন্যরকমের একটি চরিত্রে দর্শকরা দেখতে পাবেন ঋ-কে। গৌরবের কথায়, “আমি যেহেতু থিয়েটার থেকে এসেছি, তাই নতুন নতুন চরিত্রে কাজ করার জন্য মুখিয়ে থাকি সবসময়। দৃপ্ত তেমনই একটা চরিত্র। এখনও পর্যন্ত প্রোমোর ফিডব্যাক বেশ ভাল। দর্শকরা আমাকে চিনতে পারেনি। তাই নতুনভাবে চরিত্রটা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষার সুযোগ রয়েছে। আশা করছি সকলের এই ধারাবাহিকটি ভাল লাগবে। কারণ দিনের শেষে দর্শকরা ভাল গল্প, উপস্থাপনা ও আমাদের পারফরম্যান্স দেখেই কোনও ধারাবাহিককে পছন্দ করেন।” শ্রুতির মতে, “এসভিএফ ও জি বাংলার সঙ্গে প্রথমবার কাজ করাটা আমার কাছে স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মতোই। আমি নিজেও এরকম একটা চরিত্র দিয়েই আমার কেরিয়ার শুরু করতে চেয়েছিলাম। আমার গায়ের রং নিয়ে আমার নিজের হিনমন্যতা ছিল। ‘ত্রিনয়নী’-র হাত ধরে আমি সেটাকেই ব্যবহার করতে পারছি। আমার গায়ের রং, চোখ, চুলকে কাজে লাগাতে পেরেছি এই চরিত্রটি করতে গিয়ে। আমাদের টিমটা খুব ভাল। প্রত্যেকেই এত সাহায্য করেছেন যে মনেই হয়নি প্রথমবার অভিনয় করছি।” সাহানার মন্তব্য, “দৈব ক্ষমতা নিয়ে এর আগেও ধারাবাহিক তৈরি হয়েছে। কিন্তু অতীতও দেখতে পায়, মৃত মানুষ তার কাছে বিচার চায় এ ধরনের বিষয়ভাবনা নিয়ে কাজ এর আগে হয়নি।”

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ