BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘প্যাডম্যান’ দেখতে মুখিয়ে আছেন কনিষ্ঠতম নোবেলজয়ী মালালা   

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 21, 2018 3:55 pm|    Updated: January 21, 2018 3:55 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টুইঙ্কল খান্না প্রযোজিত, অক্ষয় কুমার অভিনীত ‘প্যাডম্যান’ ছবিটি নিয়ে মালালার উচ্ছ্বাস আকাশছোঁয়া। এই একটা বিশেষণেই বোঝা যাচ্ছে, ছবিটি নিয়ে ঠিক কতটা উদগ্রীব তিনি।

কথা হচ্ছে বিশ্বের কনিষ্ঠতম নোবেলজয়ী মালালা ইউসুফজাইকে নিয়ে। প্যাডম্যানের ঋতুচক্রকালীন পরিচ্ছন্নতার গল্পটি শোনার পর থেকেই তিনি এই সিনেমাটি দেখার জন্য অতন্ত্য উৎসাহী। এবং তিনি বলেছেন এই সিনেমার গল্পের মধ্যে রয়েছে আধুনিকতার ছোঁয়া। অক্ষয় কুমার এবং টুইঙ্কল খান্না এই ধরনের সিনেমা বানিয়ে আমাদের যে পথ দেখালেন সেই পথ সকলেরই অনুসরণীয়।

পর্যটনকে চাঙ্গা করতে সতীর্থদের নিয়ে নেপাল যাচ্ছেন ভাইজান

বৃহস্পতিবার লন্ডনের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে যান টুইঙ্কল। সেখানে মালালার সঙ্গে দেখা হয় তাঁর। তখনই পাকিস্তানের মিঙ্গোরার নোবেলজয়ী মালালা ‘প্যাডম্যান’ নিয়ে নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন টুইঙ্কলের কাছে।

সমাজকর্মী অরুণাচলম মুরুগননথমের জীবনী নিয়ে তৈরি করা হয়েছে অক্ষয় কুমার, রাধিকা আপ্তে এবং  সোনম কাপুর অভিনীত ‘প্যাডম্যান’। ২০ বছর আগে সস্তায় উৎকৃষ্ট মানের স্যানিট্যারি ন্যাপকিন বানানোর যন্ত্র তৈরি করেন এই অরুণাচলম এবং  বিপ্লব নিয়ে আসেন গ্রামীণ সমাজে। তাঁর এই অবদান সমাজে ‘হাইজিন রেভলিউশন’ নামে খ্যাতি পেয়েছিল। আর এইরকম মহৎ বিষয় নিয়ে সিনেমা বানানোর জন্য অক্সফোর্ডে প্যাডম্যান নিয়ে বক্তব্য রাখতে আমন্ত্রিত হয়েছিলেন প্রযোজক ও লেখক টুইঙ্কল খান্না।

এই প্রথম কোনও ভারতীয় ছবি নিয়ে বক্তব্য রাখার জন্য মঞ্চ দিল অক্সফোর্ড। সেখানে গিয়ে টুইঙ্কল নিজের বক্তব্য রাখার আগেই মালালার সঙ্গে দেখা হয় তাঁর। মালালা তাঁকে বলেন “অসামান্য বার্তা প্যাডম্যানের। ছবিটি দেখার জন্য মুখিয়ে আছি আমি”।

ডাব্বুর ক্যালেন্ডারে নগ্ন হয়ে শোরগোল ফেললেন এই নায়িকা

মালালার সঙ্গে সাক্ষাৎপর্ব শেষে টুইঙ্কল বলেন “প্যাডম্যানের বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ কারণ ভলডেমর্ট শব্দটি যেমন উচ্চারণই করা হয় না,  তেমনই ঋতুচক্র নিয়েও মানুষের মনে রয়েছে অনেক ধোঁয়াশা এবং অবহেলা। প্যাডম্যানের প্রাথমিক লক্ষ্য, সেগুলি কাটিয়ে উঠতে মানুষকে সাহায্য করা।”  প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল ইউকে নামের একটি সংস্থা সার্ভে করে জানাচ্ছে, ব্রিটেনেও প্রতি ১০ জনের মধ্যে ১ জন ছাত্রীর কাছে পর্যাপ্ত পরিমাণ স্যানিটারি ন্যাপকিনের জোগান না থাকায় সে স্কুলে যেতে পারে না। অর্থাৎ সমস্যাটি শুধুমাত্র আমাদের দেশেরই নয়, এটি রয়েছে আন্তর্জাতিক স্তরেও। তাই এইসব থেকে বার করে আনতেই সচেষ্ট হয়েছে প্যাডম্যান। আর সেই বিষয়েই বক্তৃতার পর লন্ডনের একাধিক সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক বুদ্ধিজীবীর সঙ্গে দেখা করে  করে কথা বলেন টুইঙ্কল খান্না।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement