১১ কার্তিক  ১৪২৭  বুধবার ২৮ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ভুট্টা চাষে ব্যাপক লক্ষ্মীলাভের সম্ভাবনা, কৃষকদের আগ্রহ বাড়াতে উদ্যোগ রাজ্যের

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 12, 2019 9:10 pm|    Updated: September 12, 2019 9:10 pm

An Images

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ভুট্টা চাষে বিশেষ জোর দিচ্ছে রাজ্য। পুজোর পরে কৃষক ও আধিকারিকদের নিয়ে ওয়ার্কশপ। কেনা হচ্ছে ভুট্টা ছাড়ানোর মেশিন। ধান চাষের পাশাপাশি বছরের অন্যান্য সময় ভুট্টা চাষ করে কৃষকরা যাতে লাভবান হতে পারেন, সে ব্যাপারে বিশেষ নজর দিয়েছে কৃষি দপ্তর। আধিকারিকরা পর্যালোচনা করে দেখেছেন, কম জলেই ভুট্টা চাষ করা যায়। আর রাঢ় মাটিতে ভালভাবেই ভুট্টা চাষের ফলন সম্ভব। সেক্ষেত্রে ভুট্টা চাষে কৃষকদের উৎসাহ দেওয়া ও সহযোগিতা করার জন্য সরকার পরক্ষেপ নিয়েছে।

[আরও পড়ুন: ইলিশের ঘাটতি, বাঙালির রসনাতৃপ্তিতে মিল্ক ফিশ চাষে জোর]

কৃষিমন্ত্রী আশিস বন্দোপাধ্যায় বলেন, “ভুট্টা চাষে জোর দিতে চাইছি। উদ্দেশ্য কৃষকদের আয় বাড়ানো।” ইতিমধ্যে সরকারের কাছে তথ্য এসেছে, ভুট্টা চাষে কৃষকরা লাভবান হচ্ছেন। ভুট্টার কেজি প্রতি দর ৮ টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে ২২ টাকা। ফলে ভুট্টা চাষের মাধ্যমে কৃষকদের আয় বাড়ানোর দিকে নজর দেওয়া হয়েছে। কৃষিমন্ত্রী জানান, পুজোর পর বীরভূম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া জেলার কৃষি দপ্তরের আধিকারিক ও কৃষকদের নিয়ে ওয়ার্কশপ করা হবে।

[আরও পড়ুন: বৃষ্টির ঘাটতি বাঁকুড়ায়, আমন ধান চাষে ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা]

কৃষকদের সুবিধার্থে ভুট্টা ছাড়ানোর নয়া যন্ত্রের ব্যবস্থা করতে চলেছে সরকার। কৃষি দপ্তর জানিয়েছে, উত্তরবঙ্গ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় একটি মেশিন তৈরি করেছে, যার দ্বারা কম সময়ের মধ্যে বেশি ভুট্টা ছাড়ানো যাবে। সেক্ষেত্রে যন্ত্রটিতে ১ কুইন্টাল ভুট্টা ছাড়াতে খরচ পড়বে ৮ টাকা। দাম ৯৫০০ টাকা। কৃষিমন্ত্রীর সঙ্গে উত্তরবঙ্গ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের আধিকারিকদের সঙ্গেও বৈঠকও হয়েছে। পুজোর পর অনুষ্ঠিত হতে চলা ওয়ার্কশপে এই যন্ত্রটির বিষয়ে আধিকারিক ও কৃষকদের সঙ্গে বিশদে আলোচনা করতে চাইছে কৃষি দপ্তর। ফার্মের মাধ্যমে যন্ত্রটি কৃষকদের সরবরাহ করার বিষয়েও রাজ্য কৃষি দপ্তর ভাবনাচিন্তা করেছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement