২৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বেশিরভাগ বাড়িতেই জুঁই ফুল গাছ দেখা যায়৷ বাড়ির আশেপাশে ছোট্ট একটুখানি বাগান বা টব হলেই যথেষ্ট। তাতেই আপনার বসিয়ে দিতে পারেন জুঁই ফুল গাছ৷ খুব বেশি যত্নেরও প্রয়োজন হয় না এই গাছের৷ সামান্য পরিশ্রমে সুগন্ধী এই ফুলের চাষ করা সম্ভব৷ পুজো ও বিয়ের কাজে জুঁই ফুল ব্যবহার করা হয়৷ তাই পুজো ও বিয়ের মরশুমে এই ফুলে চাহিদা থাকে ভালই৷ এই ফুল বিক্রি করে প্রচুর লক্ষ্মীলাভও হয় কৃষকদের৷

[কালো নুনিয়ার সঙ্গে তুলাইপাঞ্জি চাল চাষের উদ্যোগ কোচবিহারে]

[শিলাবৃষ্টিতে সূর্যমুখী চাষে ব্যাপক ক্ষতি, মাথায় হাত কৃষকদের]

যেকোনও মাটিতে জুঁই গাছের চাষ করা সম্ভব৷ তবে কাঁকরযুক্ত মাটি না হওয়াই শ্রেয়৷ গোড়ায় জল জমতে যাতে না পারে, এমন জায়গাতেই ওই গাছ বসাতে হবে৷ অতিরিক্ত সূর্যের আলো জুঁই গাছের জন্য বিপজ্জনক৷ সারাদিনে ঘণ্টাখানেক রোদই এই গাছের জন্য যথেষ্ট৷ টবে যদি এই গাছ বসানো হয়, তবে তা জানালার পাশে রাখতে হবে৷ শীতকালে ঠাণ্ডা হাওয়া থেকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে গাছটিকে৷ গরমকালেও জুঁই ফুলের গাছের কোনও ক্ষতি হয় না৷ ফুলও ফোটে ভালই৷ শীতকালে সাধারণত জুঁই ফুল ফোটে কম৷ কিন্তু ওই সময়ই এই গাছটি বেড়ে ওঠার জন্য আদর্শ৷ তবে জুঁই ফুল যখন ফোটে তখন প্রচুর পরিমাণ জল প্রয়োজন৷ সেই সময় এই গাছের গোড়া ভিজে রাখতে পারলেই ভাল৷ সপ্তাহে প্রায় প্রতিদিনই জল দিতে হবে গাছে৷ তবে বর্ষার মরশুমে প্রতিদিন গাছে জল না দিলেও চলবে৷

 

[জবা ফুল চাষ করেও হতে পারে প্রচুর লাভ, পদ্ধতি জানা আছে?]

জুঁই গাছের সাধারণত পোকা লাগার সমস্যা থেকে যায়৷ এছাড়া পাতা বিবর্ণ হয়ে যাওয়া অথবা সাদা হয়ে যাওয়ার মতো সমস্যাও দেখা যায়৷ জুঁই ফুলে পোকা লাগার সমস্যাও কম নয়৷ যে পাতাটি বিবর্ণ হয়ে যাবে, সেটি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ছিঁড়ে ফেলতে হবে৷ পাতায় পোকা লেগে গেলে সেই পাতাটিকে সাবান দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে৷ খেয়াল রাখতে হবে সাবান জল যেন গাছের গোড়া পর্যন্ত না পৌঁছায়৷ এছাড়া পটাশিয়াম ও ফসফরাসযুক্ত সারও গাছের বৃদ্ধিতে কাজে লাগে৷

[পাটের বিকল্প হিসাবে আখ চাষের দিকে ঝুঁকছেন কৃষকরা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং