২১ আষাঢ়  ১৪২৭  সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনে বন্ধ সস তৈরির কারখানা, কুমড়ো রপ্তানি না হওয়ায় মাথায় হাত কৃষকদের

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 30, 2020 9:21 pm|    Updated: April 30, 2020 9:21 pm

An Images

রাজা দাস, বালুরঘাট: আন্তঃরাজ্য পণ্য পরিবহণের পাশাপাশি বন্ধ সস তৈরির কারখানা। রপ্তানির সমস্যায় জমিতেই নষ্ট হচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকার কুমড়ো। সস তৈরির অন্যতম এই কাঁচামাল বিক্রি না হওয়ায় মাথায় হাত কৃষকদের। সরকারি সাহায্যের আরজি জানিয়েছেন তাঁরা।

কলকাতা, শিলিগুড়ি-সহ দেশের অধিকাংশ সস কারখানায় ব্যবহৃত অন্যতম কাঁচামাল কুমড়োর জোগান দেয় দক্ষিণ দিনাজপুর। জেলার বালুরঘাট ব্লকের খাসপুর, সৈয়দপুর, দুর্লভপুর এবং বোল্লা এলাকার কয়েক হাজার হেক্টর জমিতে কুমড়ো উৎপাদিত হয়। হাজার হাজার টন কুমড়ো উৎপাদনের নিরিখে ওই এলাকাগুলি জেলায় সবজি শিল্পক্ষেত্র হিসাবে পরিচিত। প্রতি বছর বড় বড় লরিতে বোঝাই হয়ে এই কুমড়োগুলি ১০ থেকে ১৫ টাকা কেজি দরে বাইরে সস কারখানাগুলিতে চলে যেত। তবে এবার জমিতে কুমড়ো পরিণত হতেই শুরু হয়েছে লকডাউন। তার জেরে কারখানাগুলির পাশাপাশি বন্ধ আন্তঃরাজ্য পণ্য পরিবহণ। গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকায় মাঠেই পড়ে পচে যাচ্ছে কুমড়ো। কষ্টার্জিত ফসল বেচতে না পেরে মাথায় হাত পড়েছে কৃষকদের।

Pumpkin

[আরও পড়ুন: লকডাউনে হাতে কলমে প্রশিক্ষণে সমস্যা, অনলাইনে মৎস্য চাষিদের শেখাচ্ছেন বিশেষজ্ঞ]

দুর্লভপুর এলাকার গৌতম মণ্ডল এবং খাসপুরের কৃষক সুনীল বর্মন বলেন, “সস কারখানাগুলি বন্ধের পাশাপাশি স্থানীয় বাজার হাটেও বিক্রেতা কম। বাইরে রপ্তানি বন্ধ থাকায় জমি থেকে সামান্য কিছু কুমড়ো তুলে স্থানীয় বাজারে সরবরাহ করেছি। কিন্তু ১ টাকা কেজি দরেও তা কিনতে চাইছে না কেউ। ঋণ করে এই সবজি লাগিয়ে এখন চরম দুশ্চিন্তায় আমরা। সরকার আমাদের জন্য কিছু ভাবনাচিন্তা করুক এই আবেদন।”

[আরও পড়ুন: কৃষকদের থেকে সরাসরি সবজি কিনছে পুলিশ, লকডাউনে উপকৃত পুরুলিয়ার বহু কৃষক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement