Advertisement
Advertisement
Crane

হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল ভারী ক্রেন, চাপা পড়ে বিশাখাপত্তনমে মৃত অন্তত ১০

ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকে বহু।

10 killed after massive crane crashes in Vishakhapattanam shipyard
Published by: Paramita Paul
  • Posted:August 1, 2020 3:26 pm
  • Updated:August 1, 2020 3:38 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের বড় দুর্ঘটনা বিশাখাপত্তনমে (Visakhapatnam)। শনিবার দুপুরে হিন্দুস্থান শিপইয়ার্ড লিমিটেডে (Hindistan Shipyard LTD) একটি ভারী ক্রেন ভেঙে পড়ে মৃত্যু হল কমপক্ষে ১০ শ্রমিকের। ভাঙা ক্রেনের নিচে আরও কয়েকজন আটকে রয়েছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। শুরু হয়েছে উদ্ধারকার্য। সূত্রের খবর, হিন্দুস্তান শিপ ইয়ার্ড লিমিটেডের ওই ক্রেনটি (Crane) অনেক পুরনো। ভারীত মালপত্র ওঠানো নামানোর জন্য ব্যবহার করা হত ক্রেনটি।  দুর্ঘটনার পর ক্রেনটির স্বাস্থ্য ও তার পরিচর্যা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। প্রসঙ্গত, লকডাউনের পরই বিশাখাপত্তনমের একটি কারখানা থেকে গ্যাস লিক করে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল।

সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, রোজকার মতো শনিবারও ওই ডকে মালপত্র ওঠানো-নামানো চলছিল। দুপুর সাড়ে বারোটা নাগাজ আচমকাই ক্রেনটি ভেঙে পড়ে। বিকট শব্দ শুনে আশপাশের ডক থেকে লোকজন ছুটে আসে। ক্রেনের নিচে যারা কাজ করছিল তাঁদের মধ্যে দশজনের ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। অনেকেই ক্রেনের নিচে চাপা পড়ে রয়েছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। শুরু হয়েছে উদ্ধারকার্য। তবে কী কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটল, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। 

[আরও পড়ুন : গুরুগ্রামে প্রকাশ্যে ‘গোরক্ষক’দের দাপাদাপি, মাংস পাচারকারী সন্দেহে হাতুড়ি দিয়ে মার যুবককে]

সংস্থা সূত্রে খবর, ক্রেনটি বহু পুরনো। সেই ক্রেন দিয়েই ভারী মাল তোলা হত। লকডাউনের মাঝে কি পরিচর্যার অভাব হয়েছিল? অনেকক্ষেত্রেই দেখা গিয়েছে, লকডাউন চলাকালীন বহু কারখানা যন্ত্রাংশের পরিচর্যা হয়নি ঠিকমতো। ফলে কারখানা খোলার পর বিভিন্ন দুর্ঘটনা ঘটছে। এক্ষেত্রেও তেমন কিছু হয়েছে কি না তা তদন্ত করে দেখা হবে। 

[আরও পড়ুন : ফের বাড়ল ভরতুকিহীন রান্নার গ্যাসের দাম, এই নিয়ে লাগাতার ৩ মাস মূল্যবৃদ্ধি]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ