BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কাশ্মীরে সাড়ে ১২ লক্ষ মানুষ পেলেন ডোমিসাইল সার্টিফিকেট, ষড়যন্ত্রের অভিযোগ বিরোধীদের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: September 1, 2020 7:40 pm|    Updated: September 1, 2020 8:03 pm

An Images

ডাল লেক (ফাইল ফটো)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদ করার পাশাপাশি বর্তমানে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল দু’টির জন্য নয়া ‘ডোমিসাইল’ আইন প্রণয়ন করেছে কেন্দ্র। এই আইন মেনেই এখনও পর্যন্ত ১২ লক্ষ ৫০ হাজার মানুষকে দেওয়া হয়েছে ডোমিসাইল সার্টিফিকেট। এমনটাই জানিয়েছেন জম্মু-কাশ্মীরের বিদ্যুত্‍ বিভাগের সচিব তথা প্রশাসনের মুখপাত্র রোহিত কানসাল।

[আরও পড়ুন: চিকিৎসার বিল মেটাতে অপারগ, হাসপাতালের কাছেই সজ্যোদাতকে ‘বিক্রি’ করল দম্পতি!]

মঙ্গলবার শ্রীনগরে সাংবাদিকদের রোহিত কানসাল জানান, বর্তমানে লুপ্ত জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের স্থায়ী বাসিন্দা বা ‘পারমানেন্ট রেসিডেন্ট সার্টিফিকেট’ যাঁদের আছে তাঁদেরকেই ডোমিসাইল সার্টিফিকেট দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে রয়েছে পাকিস্তান থেকে আসা প্রায় ১১ হাজার শরণার্থী, দেশের অন্য প্রান্ত থেকে কাশ্মীরে এসে বসবাস করা ১২ হাজার মানুষ, বাল্মীকি সম্প্রওয়াদের ৪৫০ জোন ও ১০ গোর্খা জনজাতির মানুষ। এর ফলে এবার জম্মু-কাশ্মীরে সরকারি চাকরিতে তাঁরা আবেদন করার সুযোগ পাবেন। জপদীও এই ডোমিসাইল সার্টিফিকেট জমি কেনার কাজে ব্যবহার করা যাবে না। উল্লেখ্য, জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদ হওয়ার আগে ভরিতের অন্য অংশের মানুষ ওই রাজ্যে চাকরি করার সুযোগ পেতেন না। কিন্তু কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত হওয়ার পর সেই নিয়মে বদল এনেছে কেন্দ্র।

উল্লেখ্য, এই ডোমিসাইল সার্টিফিকেট নিয়ে গোড়া থেকেই সুর ছড়িয়েছে কাশ্মীরের রাজনৈতিক দলগুলি। নয়া আইন এনে কাশ্মীরের জনবিন্যাস পালটাতে চাইছে কেন্দ্র বলে অভিযোগ তাদের। শুধু তাই নয় মৌলবাদী ও সন্ত্রাসবাদীরাও কাশ্মীরি পন্ডিত-সহ দেশের অন্য মানুষের উপত্যকায় বাস করার বিরোধী। কয়েকদিন আগেই জম্মু ও কাশ্মীরে স্থায়ীভাবে বসবাসের চেষ্টা করলে ফল ভুগতে হবে ‘ভারতীয়’দের বলে হুমকি দিয়েছে পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন ‘দ্য রেসিস্ট্যানস ফ্রন্ট’ (TRF)। লস্কর-ই-তইবার শাখা সংগঠন বলে পরিচিত রেসিস্ট্যানস ফ্রন্ট এক্ষেত্রে ‘ভারতীয়’ বলতে জম্মু ও কাশ্মীর ছাড়া দেশের ভিনরাজ্যের বাসিন্দাদের কথা বলছে। এর নেপথ্যে ভয়াবহ ষড়যন্ত্র রয়েছে বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরে জঙ্গি দমনে বড়সড় সাফল্য, ৭ ঘণ্টার তল্লাশিতে হদিশ মিলল জেহাদিদের গোপন ডেরার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement