BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কাশ্মীরে জঙ্গি দমনে বড়সড় সাফল্য, ৭ ঘণ্টার তল্লাশিতে হদিশ মিলল জেহাদিদের গোপন ডেরার

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 1, 2020 5:19 pm|    Updated: September 1, 2020 5:29 pm

An Images

সোমনাথ রায়, নয়াদিল্লি: ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে (LoC) ঘাঁটি গেড়েছিল জঙ্গিরা (Terrorist)। ছিল বড়সড় নাশকতারও ছকও। তবে ভারতীয় সেনার কড়া নজর এড়াতে পারল না তারা। তল্লাশি চালিয়ে কাশ্মীরের (Kashmir) বারামুল্লার কাছে জঙ্গিদের গোপন ডেরার হদিশ পেল ভারতীয় সেনা। উদ্ধার হল বিপুল অস্ত্রও।

সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে, গত দু’দিন ধরেই নিয়ন্ত্রণরেখার নিকটবর্তী রামপুরের (Rampur) একটি গ্রামে কয়েকজন সন্দেহজনক লোকজনকে ঘোরাফেরা করতে দেখেন সেনা জওয়ানরা। দু’দিন ধরে তাদের উপর নজর রাখছিল সেনা। খারাপ আবহাওয়া ও এলাকাটা জঙ্গলঘেরা হওয়ায় অভিযান চালানো বেশ কঠিন হয়ে পড়ছিল। শেষ পর্যন্ত মঙ্গলবার সাত ঘণ্টায় তল্লাশিতে সন্ত্রাসবাদীদের দু’টি গোপন ঘাঁটির হদিশ পায় জওয়ানরা। সেখানে থেকে উদ্ধার হয়েছে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গোলাগুলি। টানা সাত ঘণ্টার তল্লাশিতে ৫টি একে ৪৭ রাইফেল, ৬টি ম্যাগাজিন, একটি বাক্সে ভরা ১২৫৪ রাউন্ড একে ৪৭ রাইফেলের গুলি, ৬টি পিস্তল, ৯টি ম্যাগাজিন, ২১টি গ্রেনেড ও ২টি রেডিও সেট উদ্ধার হয়।

[আরও পড়ুন : চিন সীমান্তে মোতায়েন হবে শতাধিক রকেট লঞ্চার, দেশীয় তিন সংস্থাকে ২৫০০ কোটির বরাত]

এই বিপুল অস্ত্র দেখে চোখ কপালে উঠেছে জওয়ানদের। জওয়ানরা মনে করছেন, কাশ্মীরে বড়সড় কোনও নাশকতার ছক কষেছিল জঙ্গিরা। সীমান্তের ওপার থেকে অস্ত্রগুলি সরবরাহ করা হয়েছে। সেগুলি দ্রুত এখান থেকে সরিয়ে ফেলার পরিকল্পনা করেছিল। কিন্তু জওয়ানদের তৎপরতায় তা হল না। প্রসঙ্গত. কিছুদিন আগেও বারামুল্লায় কাশ্মীরের জঙ্গি সংগঠনগুলির হাতে অস্ত্র পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা হয়েছিল।

[আরও পড়ুন : ভারতীয় বাহিনীর দখলে প্যাংগং হ্রদ সংলগ্ন পাহাড়ি এলাকা, পিছু হঠেছে লালফৌজ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement