২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক : ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে পড়ল দুটি ট্রেন। হায়দরাবাদের কাচ্চিগুড়া রেলস্টেশনে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় ট্রেন দুটির। এই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১৩ জন।

[আরও পড়ুন : এনসিপির সঙ্গে সরকার গঠনের তোড়জোড়, মোদির মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা শিব সেনার

সেকেন্দ্রাবাদ সিটি জংশন ও কুর্নুলের মাঝে থাকা কাচ্চিগুড়ায় সংঘর্ষ হয় হান্ড্রি এক্সপ্রেস ও একটি লোকাল ট্রেনের মধ্যে। মুখোমুখি ধাক্কা লাগার জেরে হান্ড্রি এক্সপ্রেসের তিনটি বগি বেলাইন হয়ে যায়। যান্ত্রিক ত্রুটির কারণেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে। দু’টি ট্রেন একই লাইনে চললেও কোনও ধরনের সংকেত কিংবা সতর্কবার্তা দেওয়া হয়নি। ফলে তারা মুখোমুখি ধাক্কা মারে।

রেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দুটি ট্রেনই নির্দিষ্ট গতিবেগ মেনেই চলছিল। তারপরও কীভাবে এই দুর্ঘটনা ঘটল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কীভাবে ট্রেন তারা একই ট্র্যাকে চলে এল তা নিয়ে তদন্ত চলছে। পুরো বিষয় খতিয়ে দেখার জন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘কাশী-মথুরা বাকি হ‌্যায়’ স্লোগান থেকে দূরত্ব বজায় রাখছেন সংঘ প্রধান ভাগবত ]

দুর্ঘটনার পরেই উদ্ধারকারী দল ও রেলের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে যান। চটজলদি শুরু হয় উদ্ধার কাজ। ক্ষতিগ্রস্ত ট্রেনের দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া বগির ভিতর আটকা পড়া এক চালককে উদ্ধার করা হয়। দুর্ঘটনায় আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। দুর্ঘটনার কবলে পড়া ট্রেন দুটির একটি হায়দরাবাদ মাল্টি-মডাল ট্রান্সপোর্ট সিস্টেমের, অপরটি হান্ড্রি এক্সপ্রেস। দ্বিতীয় ট্রেনটি সেকেন্দ্রাবাদ সিটি রেলস্টেশন থেকে অন্ধ্রপ্রদেশের কুর্নুল রেলস্টেশনের মধ্যে চলাচল করে।

ভারতে বুলেট ট্রেন চালানোর স্বপ্ন দেখছে বর্তমান শাসকদল। এর পাশাপাশি তৈরি করা হচ্ছে একের পর এক অত্যাধুনিক স্টেশন। কিন্তু, এত কিছুর পরেও দুর্ঘটনার হার কমছে না। রেলের পরিকাঠামো, নিরাপত্তা ও পরিষেবা নিয়েও প্রায়ই প্রশ্ন ওঠে। তারপরও রেলের কোনও ভ্রূক্ষেপ নেই বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং