১১ মাঘ  ১৪২৬  শনিবার ২৫ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১১ মাঘ  ১৪২৬  শনিবার ২৫ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

 সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উন্নাওয়ের নির্যাতিতার মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা আগেই ফের গণধর্ষণ উত্তরপ্রদেশে। এবার পাশবিক অত্যাচারের শিকার এক ১৪ বছরের নাবালিকা। কাঠগড়ায় চার নাবালক। তারা নাকি আবার ওই নাবালিকার আত্মীয়ও বটে। শুধুমাত্র ধর্ষণ নয়, সেই অত্যাচারের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টও করে দেয় অভিযুক্তরা। ঘটনাস্থল উন্নাও থেকে ৪৮০ কিলোমিটার দূরে বুলন্দশহর জেলার পাহাশু।

উত্তরপ্রদেশ জুড়ে একের পর এক গণধর্ষণের ঘটনা সামনে এসেছে। প্রমাণ লোপাট করতে জীবন্ত জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে নির্যাতিতাকে। সেই ঘটনার বিবরণ শুনে শিউড়ে উঠেছে গোটা দেশ। প্রতিবাদে  কখনও মোমবাতি হাতে মিছিল হয়েছে। আবার কখনও সুবিচার চেয়ে আইনের দরজায়ও কড়া নেড়েছেন বুদ্ধিজীবী থেকে পরিবারের সদস্যরা। তারপরেও যে রাজ্যের পুলিশের ঘুম ভাঙেনি, তা আরও একবার স্পষ্ট করেছে পাহাশুর ঘটনা। যদিও সেকথা মানতে নারাজ প্রশাসন।

[আরও পড়ুন : “আপনার মেয়ে ধর্ষিতা হলে কি বলতেন?”, অপর্ণাকে কটাক্ষ অনুপমের]

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, চারদিন আগে, ৩ ডিসেম্বর মাঠ থেকে সবজি তুলতে গিয়েছিল বছর পনেরোর ওই নাবালিকা। সেই সময় চার নাবালক তুলে নিয়ে গিয়ে একটি বাড়ির মধ্যে আটকে রাখে। চার নাবালক মিলে পাশবিক অত্যাচার চালায়। এর মধ্যে এক নাবালক গোটা ঘটনার ভিডিও করে। পরে সেই ভিডিও ইন্টারনেটে পোস্টও করে। এরপরই নড়েচড়ে বসে পুলিশ। শুক্রবার ওই নাবালিকার কাকা পুলিশে অভিযোগ দায়ের করে। এর আড়াই ঘণ্টার মধ্যেই তিন নাবালককে গ্রেপ্তার করা হয় বলে দাবি পুলিশের। পরে ভিডিও আপলোড করার দায়ে আরও এক নাবালককে গ্রেপ্তার করা হয়।

[আরও পড়ুন : ‘ধর্ষকদের ফাঁসি দেখে যেতে চাই’, মৃত্যুর আগে বলেছিলেন উন্নাওয়ের নির্যাতিতা]

ঘটনা প্রসঙ্গে বুলন্দশহরের পুলিশ সুপার এস কে সিং বলেন, পুলিশ অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করেছে। তারপরেও এলাকার আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের উন্নাওয়ের যৌন নির্যাতনের পরিসংখ্যান সামনে এসেছে। তাতে চমকে উঠছে গোটা দেশ। এরমধ্যে বুলন্দশহরের এই ঘটনা আরও সাধারণ মানুষের মধ্যে যে আরও ক্ষোভ বাড়াবে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।       

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং