Advertisement
Advertisement

Breaking News

মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ পালানিস্বামীর, সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের সময় ১৫ দিন

এই শর্তই মেনে নিয়েছেন পালানিস্বামী।

15 days deadline to Palaniswami to prove majority
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:February 16, 2017 11:36 am
  • Updated:February 16, 2017 11:36 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে চারটেয় তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী পদে যোগদান করলেন পালানিস্বামী। উত্তাল রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে সংখ্যা গরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে ১৫ দিন সময় পেলেন তিনি।

কে চালাবেন সাম্রাজ্য? শশীকলার বিশ্বস্ত ই কে পালানিস্বামী নাকি আম্মার বিশ্বস্ত ও পন্নিরসেলভম? এখন এই নিয়েই তামিলনাড়ুর রাজনৈতিক তরজা একেবারে তুঙ্গে। বৃহস্পতিবার তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে পালানিস্বামীর শপথ গ্রহণ করার কথা। এদিন বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ নতুন মুখ্যমন্ত্রী এবং মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণের কথা। কিন্তু রাজ্যের রাজনৈতিক অবস্থা এমন পর্যায়েই পৌঁছেছে যে রাজ্যের রাজ্যপাল শশীকলার সংগঠকদের ১৫ দিনের সময় দিয়েছেন নিজেদের সংখ্যা গরিষ্ঠতা প্রমাণ করার জন্য। আর এই শর্তই মেনে নিয়েছেন পালানিস্বামী। তাঁর দাবি দলের ১১৭ জন বিধায়ক তাঁর পক্ষে রয়েছেন।

Advertisement

অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার সকালে গোল্ডেন বে রিসর্ট থেকে ফিরে আসতে শুরু করেন তামিলনাড়ুর বিধায়করা। আর সেই সঙ্গে সঙ্গেই রাজনৈতিক জটিলতা যেন ক্রমশ বাড়ছে। এদিন পন্নিরের সমর্থনে থাকা বিধায়করা রীতিমতো সরব হন। এআইএডিএমকে বিধায়ক কে পান্দিয়ারাজন বলেন, “এমন বহু বিধায়ক রয়েছেন যাঁরা কেবল আম্মার নীতিকেই সমর্থন করবেন।” অপর বিধায়ক এস সেম্মালাই বলেন, “এবার আমরা ফিরে যাচ্ছি এবং দলের সমর্থকদের সঙ্গে কথা বলব। এরপরেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে কে দলের দায়িত্বভার নেবেন।” এদিন পন্নিরসেলভমও জানিয়েছেন, ধর্ম যুদ্ধে একবার যখন তিনি নেমেছেন, তখন সেই যুদ্ধ অব্যাহত রাখবেন।

Advertisement

(অ্যান্টিবায়োটিকের রমরমা রুখতে প্রেসক্রিপশনে নজরদারি কেন্দ্রের)

অন্যদিকে এআইএডিএমকে’র দলীয় কোন্দলকে নিজেদের শক্তি হিসাবে কাজে লাগাবার চেষ্টায় উদ্যত তামিলনাড়ুর প্রধান বিরোধী দল ডিএমকে। তাঁদের পক্ষ থেকে রাজ্যপালের সিদ্ধান্ত বিরোধিতা করা হয়েছে। এদিন ডিএমকে বিধায়ক এলানগোভান প্রশ্ন করেন, “কেন মুখ্যমন্ত্রীকে সংখ্যা গরিষ্ঠতা প্রমাণ করার জন্য ১৫ দিন সময় দেওয়া হল?” বিধায়কের আরও দাবি আসলে রাজ্যপাল নিজের রাজ্য রাজনীতির অবস্থা নিয়ে বিশেষ আশ্বস্ত নন।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ