১০ আষাঢ়  ১৪২৮  শুক্রবার ২৫ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করোনা কালেই আড়াই লক্ষ SBI কর্মী পেতে চলেছেন ১৫ দিনের অতিরিক্ত বেতন!

Published by: Sulaya Singha |    Posted: May 22, 2021 9:57 am|    Updated: May 22, 2021 9:57 am

2.5 lakh employees of SBI likely to get 15 days' salary | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা (Corona virus) আর লকডাউনের জেরে যেখানে চাকরি খোয়াতে হচ্ছে হাজারো মানুষকে, সেখানে সুখবর পেতে চলেছেন স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার (SBI) কর্মীরা। সব ঠিকঠাক থাকলে দেশের সর্ববৃহৎ (গ্রাহকের নিরিখে) ব্যাংকের প্রায় আড়াই লক্ষ কর্মী ১৫ দিনের অতিরিক্ত বেতন পেতে পারেন। দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের জন্যই ইনসেনটিভ হিসেবে এই অতিরিক্ত বেতন দেওয়া হতে পারে তাঁদের বলেই শোনা যাচ্ছে।

জানা গিয়েছে, ২০২১ অর্থবর্ষে এসবিআইয়ের আয় উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। রিপোর্ট বলছে, চলতি বছরের আর্থিক বর্ষে ৪১ শতাংশ বেড়েছে ব্যাংকের মোট লাভ। আর সেই কারণেই কর্মীদের মুখে হাসি ফোটাতে পারে স্টেট ব্যাংক। যা লকডাউনের মধ্যে নিঃসন্দেহে আনন্দের খবর। কোনও ব্যাংকের উল্লেখযোগ্য আয় হলে সেই ব্যাংক চাইলে তার কর্মীদের পুরস্কৃত করতে পারে। গত বছর এই প্রস্তাবে সবুজ সংকেত দিয়েছিল নভেম্বরে ইন্ডিয়ান ব্যাংকস অ্যাসোসিয়েশন (IBA)। এই চুক্তি অনুযায়ী, কোনও PSU সেক্টরের ৫ থেকে ১০ শতাংশ লাভ হলে কর্মীরা পাঁচদিনের অতিরিক্ত বেতন পেতে পারে ইনসেনটিভ হিসেবে। এক্ষেত্রে বেসিক এবং DA যোগ করে সেই অর্থ তুলে দেওয়া হয় কর্মীদের হাতে। আবার লভ্যাংশের পরিমাণ ১০-১৫ শতাংশ হলে ১০ দিনের অতিরিক্ত বেতন দেওয়া হতে পারে কর্মীদের। ১৫ শতাংশের লাভ হলে কর্মচারীরা পেতে পারেন ১৫ দিনের বেতন। তবে লাভের পরিমাণ পাঁচ শতাংশের কম হলে ইনসেনটিভ পাওয়ার কোনও সম্ভাবনা থাকে না।

[আরও পড়ুন: ফাঁস হয়ে গিয়েছে প্রায় ৪৫ লক্ষ যাত্রীর ব্যক্তিগত তথ্য! জানাল এয়ার ইন্ডিয়া]

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, সম্প্রতি কানাড়া ব্যাংকের কর্মীরাও নাকি ১৫ দিনের অতিরিক্ত বেতন পেয়েছে। আর্থিক বর্ষে ব্যাংকের লভ্যাংশের পরিমাণ ঘোষণার পরই কর্মচারীদের অতিরিক্ত অর্থ দেওয়ার কথা জানানো হয়। অর্থাৎ তাদের লাভের হার ১৫ শতাংশের বেশি হয়েছিল। ইনসেনটিভ পেয়েছেন ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্রের কর্মীরাও।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ব্যাংকের লাভের উপর ইনসেনটিভ দেওয়ার বিষয়টির বিরোধিতা করেছিলেন বহু কর্মী। তাঁদের দাবি, সরকারের পলিসির উপর ব্যাংকের পারফরম্যান্স নির্ভরশীল। যে বিষয়টির উপর তাঁদের কোনও নিয়ন্ত্রণ থাকে না। তবে IBA সম্মতি দেওয়ায় আপাতত এই নিয়মই মেনে নিতে হচ্ছে কর্মীদের।

[আরও পড়ুন: শরীরে রয়েছে করোনার অ্যান্টিবডি! মাত্র ৭৫ মিনিটেই জানিয়ে দেবে DRDO’র নয়া কিট]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement