Advertisement
Advertisement

Breaking News

Uttar Pradesh

বাড়িতে ঢুকে ২ শিশুকে নৃশংস হত্যা উত্তরপ্রদেশে, পুলিশি এনকাউন্টারে খতম দুষ্কৃতী

কুড়ুলের কোপে দুই শিশুকে নৃশংস হত্যা দুষ্কৃতীর।

2 children killed at Uttar Pradesh accused killed in police encounter
Published by: Amit Kumar Das
  • Posted:March 20, 2024 8:50 am
  • Updated:March 20, 2024 4:10 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভয়াবহ হত্যাকাণ্ড যোগী রাজ্য উত্তরপ্রদেশে (Uttar Pradesh)। মঙ্গলবার সন্ধেয় বদায়ুনের বাবা কলোনিতে এক বাড়িতে ঢুকে দুই শিশুর গলা কেটে খুন করার অভিযোগ উঠল এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশের (Police) গুলিতে মৃত্যু হয়েছে অভিযুক্তের। শিশু হত্যাকাণ্ডের এই ঘটনায় রীতিমতো উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। প্রশাসনের তরফে এলাকায় শান্তি বজায় রাখার আবেদন জানানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যাচ্ছে, মঙ্গলবার সন্ধেয় বাবা কলোনিতে বিনোধ কুমার সিংয়ের বাড়িতে হঠাৎ উপস্থিত হন বছর ত্রিশের সাজিদ নামের এক ব্যক্তি। বিনোধ সেই সময়ে বাড়িতে ছিলেন না। ঘরে ছিলেন বিনোধের স্ত্রী ও তিন সন্তান। সাজিদ পূর্ব পরিচিত হওয়ায় অবাধ যাতায়াত ছিল বিনোধের বাড়িতে। ঘরে ঢুকে সাজিদ বিনোধের স্ত্রীকে চা খাওয়ানোর অনুরোধ করেন। সেইমতো তিনি চা বানাতে গেলে ঘর থেকে বেরিয়ে ছাদে চলে যান সাজিদ। সেখানে তখন খেলছিল বিনোধের ৩ ছেলে আয়ুষ(১১), আহান(৭) ও পীযূষ(৬)। হঠাৎ কুড়ুল নিয়ে তাদের উপর চড়াও হন ওই ব্যক্তি। অভিযোগ, কুড়ুলের কোপে আয়ুষ, আহানের ধড় মুণ্ডু আলাদা করে দেওয়া হয়। হামলায় গুরুতর জখম হয় পীযূষ। এরপরই বাড়ি থেকে পালায় অভিযুক্ত।

Advertisement

[আরও পড়ুন: টাকার বদলে প্রশ্ন মামলায় সিবিআই তদন্তের নির্দেশ, ভোটের মুখে প্রবল চাপে মহুয়া]

এদিকে চা বানিয়ে বিনোধের স্ত্রী দেখেন সাজিদ নেই। তাঁর খোঁজে ছাদে গিয়ে নিজের সন্তানদের ভয়াবহ পরিণতি দেখে চিৎকার করে ওঠেন তিনি। এরপর প্রতিবেশীদের সাহায্যে তড়িঘড়ি তিনজনকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা আয়ুষ, আহানকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন পীযূষ। ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসার পর এলাকায় ব্যপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে। সাজিদের সেলুনে আগুন ধরিয়ে দেয় উত্তেজিত জনতা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। তদন্তে নেমে সাজিদকে গ্রেপ্তার করতে গেলে পুলিশের উপর হামলার চেষ্টা করে অভিযুক্ত, পালটা গুলিতে মৃত্যু হয় সাজিদের।

Advertisement

[আরও পড়ুন: বঙ্গের প্রার্থী জটিলতা কাটাতে পারলেন না শাহ-নাড্ডারাও! তালিকা ঘোষণায় আরও বিলম্বের সম্ভাবনা]

এই ঘটনা শোকাহত মৃত নাবালকদের মা সঙ্গীতা সংবাদমাধ্যমকে জানান, “সাজিদ আমার পরিচিত। সন্ধেয় বাড়িতে এসে প্রথমে আমার কাছে একটা ক্লিপ চায়। আমি ওকে সেটা দিই। তার পর বলে আমার পাঁচ হাজার টাকার খুব দরকার। অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে রাতে হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে। আমি আমার স্বামীকে ফোন করে সাজিদের কথা জানাই। তিনি টাকা দিয়ে দিতে বলেন। আমি দিয়ে দিই। সাজিদকে চা খেতে বলি।” মহিলার দাবি অনুযায়ী, তিনি চা বানাতে গেলে সেই সময়ে ছাদে গিয়ে হত্যাকাণ্ড চালায় সাজিদ।  যদিও কেন সে দুই শিশুকে খুন করল? কারণ এখনও স্পষ্ট নয়, গোটা ঘটনার তদন্ত করছে পুলিশ।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ