BREAKING NEWS

১০  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বাড়ল মেয়াদ, ধর্ষণে দোষী রাম রহিমের কারাদণ্ড ২০ বছরের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 28, 2017 8:07 am|    Updated: October 2, 2019 5:57 pm

20 year jail term for Dera Chief Ram Rahim

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রোহতকের সুনারিয়া জেলকে সোমবার সকাল থেকেই কার্যত দুর্গে পরিণত করা হয়। ডেরা সাচা সওদা প্রধান গুরমিত রাম রহিমের সাজা ঘোষণার আগেই সেখানে মোতায়েন করা হয় সেনার বিশেষ বাহিনী, স্নাইপার, তৈরি করা হয় বাঙ্কারও। রাম রহিমকে ভারতীয় দণ্ডবিধির যে সমস্ত ধারায় দোষী সাব্যস্ত করেছে, তাতে তার ন্যূনতম সাত বছর থেকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড পর্যন্ত হতে পারে৷ ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ ধারা (ধর্ষণ) ও ৫০৬ ধারায় (ভয় দেখিয়ে অপরাধ) দোষী সাব্যস্ত হয়েছে ওই ভণ্ড ধর্মগুরু।

দিনভর এই খবরের খুঁটিনাটি:

৭টে ০০ মিনিট:  দশ নয়, কুড়ি বছরের  কারাদণ্ড বাবা রাম রহিমের। দুটি ধর্ষণ কাণ্ডে দোষী বাবা। তাই  মোট কুড়ি বছরের সাজা হল তার। দুটি সাজা একসঙ্গে চলবে না, অর্থাৎ মোট কুড়ি বছরেরই কারাদণ্ডের মেয়াদ পূরণ করতে হবে গুরমিতকে। প্রথমে দশ বছরেরই সাজা ঘোষণা করা হয়েছিল।কিন্তু বাবার বিরুদ্ধে ছিল দুটি ধর্ষণের অভিযোগ। দুটিরই রায় ঘোষণা হল। সব মিলিয়ে মোট কুড়ি বছর গারদের ওপারে থাকতে হবে রাম রহিমকে। এবং এই সাজা একযোগে চলতে পারে না। আইন মোতাবেক তাই একটির মেয়াদ শেষ হওয়ার পর আর একটির মেয়াদ শুরু হবে।মোট কুড়ি বছর ধর্ষক বাবাকে কাটাতে হবে জেলে।

৩টে ৩০ মিনিট:  ধর্ষক বাবাকে ১০ বছর সশ্রম কারাদণ্ডের নির্দেশ সিবিআই আদালতের।


৩টে ২০ মিনিট: সিরসায় তাণ্ডব শুরু ডেরা সমর্থকদের, আগুন লাগানো হল দুটি গাড়িতে।


৩টে ১৭ মিনিট: পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী জরুরি বৈঠকে বসলেন।

৩টে ১৪ মিনিট: পাঞ্জাবের মোগায়  জারি কারফিউ।

৩টে ১৩ মিনিট: চোখে জল এনে শাস্তি মকুবের আরজি ধর্ষক বাবার।

৩টে ১২ মিনিট: বিচারকের সামনে দোষ স্বীকার করল রাম রহিম।

৩টে ০৪ মিনিট: শেষ হল সওয়াল-জবাব।

৩টে ০১ মিনিট: নির্যাতিতার উপর তিন বছর লাগাতার অত্যাচার হয়েছে। আরও ৪৫ জন নির্যাতিত ভয়ে প্রকাশ্যে আসছেন না। এটা বিরলতম অপরাধ: সিবিআই আইনজীবী।

২টো ৫৮ মিনিট: প্রচুর সমাজসেবা করেছেন ‘বাবা’, আদালতের কাছে শাস্তি মকুবের আরজি গুরমিত সিংয়ের আইনজীবীর।

২টো ৫৫ মিনিট: বিচারকের সামনে নাটক ‘ধর্ষক বাবা’র।

২টো ৫০ মিনিট: ‘ভুল হয়ে গিয়েছে, ক্ষমা করে দিন’, আদালতে বললেন ধর্ষণে দোষী সাব্যস্ত গুরমিত সিং।


২টো ৪০ মিনিট: সওয়াল-জবাবের পর ধর্ষণে দোষী গুরমিত সিংকে সাজা দিল বিশেষ সিবিআই আদালত।

২টো ৪০ মিনিট: দু’পক্ষেরই সওয়াল-জবাব শুনছেন বিচারপতি। আর খানিকক্ষণের মধ্যে শাস্তি ঘোষণা করা হবে।

২টো ৩৫ মিনিট: রাম রহিমের উপস্থিতিতেই চলছে শুনানি। ১০ বছরের সাজা চাইতে পারে সিবিআই।


২টো ২০ মিনিট: সিবিআইয়ের বিশেষ বিশেষ জগদীশ সিং রোহতকের সুনারিয়া জেলে পৌঁছলেন।

দুপুর ১.৩০ মিনিট: সুনারিয়া জেলের আশেপাশে নিরাপত্তার চিত্র। ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা লাগু করতে মোতায়েন করা রয়েছে ২৩ কোম্পানি অধাসেনা।

বেলা ১২টা ১০ মিনিট: শুক্রবারের ঘটনার যাতে কোনওমতেই পুনরাবৃত্তি না হয়, সেদিকে কড়া নজর রয়েছে প্রশাসনের।

বেলা ১১টা ৫৩ মিনিট: পঞ্চকুলা থেকে বিশেষ সিবিআই আদালতের বিচাপতিকে উড়িয়ে আনা হচ্ছে রোহতকে। দুপুর আড়াইটে নাগাদ সুনারিয়া জেলে শুরু হবে শাস্তি ঘোষণা।

বেলা ১১টা ৪৮ মিনিট: সিবিআই বিচারপতি জগদীপ সিং আর আধাঘন্টার মধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাবেন।

বেলা ১১টা ৪০ মিনিট: রাম রহিমের শাস্তি ঘোষণার আগে থমথমে হরিয়ানার রেল স্টেশনগুলি।


১১টা ০৭ মিনিটে: সোনিপতে ডেরার আশ্রম থেকে উদ্ধার হল প্রচুর অস্ত্রশস্ত্র।

১১টা ০২ মিনিট: ডেরা সংগঠনের কর্মসূচিতে যোগ দিতে গত তিন বছর ধরে বাড়ি ফেরেননি কাইথাল গ্রামের এক বাসিন্দা, অভিযোগে সরব তাঁর পরিবার।

সকাল ১০টা ৫০মিনিট: পুলিশ ও সেনার যৌথবাহিনী সকাল থেকেই হরিয়ানার বিভিন্ন এলাকায় ফ্ল্যাগ মার্চ করছে।


সকাল ১০টা ৪০ মিনিট: সকালেই দিল্লির নর্থ ব্লকে পাঞ্জাব ও হরিয়ানার পরিস্থিতি নিয়ে বিশেষ বৈঠকে বসেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং, অজিত দোভাল, স্বরাষ্ট্রসচিব, গোয়েন্দাপ্রধানরা।

সকাল ১০টা ৩৩ মিনিট: যে কোনও পরিস্থিতির মোকাবিলায় তৈরি পুলিশ, জানালেন রোহতকের আইজিপি।

সকাল ১০টা: হরিয়ানার পরিস্থিতি অশান্ত হলেও নিয়ন্ত্রণে, বিবৃতি জারি করে জানাল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।


সকাল সাড়ে ৯টা: ডেরার সদর দপ্তরে কারফিউ লাগু রয়েছে।

সকাল ৯টা ১৫ মিনিট: রোহতকের ডেপুটি কমিশনার অতুল কুমার জানালেন, পরিস্থিতি বুঝলে সেনাকে গুলি চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


সকাল ৯টা: পাঞ্জাবের সানগ্রুর থেকে ২৩ জন ডেরা সমর্থককে গ্রেপ্তার করল পুলিশ।

সকাল সাড়ে ৮টা: কোনও ব্যক্তি জেলের ১০ কিলোমিটারের মধ্যে এলেই গুলি চালানোর নির্দেশ।


Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে