BREAKING NEWS

১৭ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  রবিবার ৩১ মে ২০২০ 

Advertisement

উত্তরপ্রদেশে প্রবল ধুলোঝড় ও বজ্রপাত, মৃত কমপক্ষে ২৬

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: June 8, 2019 9:51 am|    Updated: June 8, 2019 9:51 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশে ধুলোঝড় ও প্রবল বজ্রপাতে মৃত্যু হল কমপক্ষে ২৬ জনের। আহত হয়েছেন ৫৭ জন। বৃহস্পতিবার সন্ধে থেকে শুরু হওয়া প্রবল ঝড়ের ফলে প্রচুর বাড়ি ও গাছ ভেঙে পড়েছে বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। তবে সবথেকে বেশি ক্ষতি হয়েছে মইনপুরি জেলা। রাজ্য ত্রাণ কমিশনের পক্ষ থেকে উদ্ধার কাজ চালানোর পাশাপাশি বিভিন্ন জায়গায় ত্রাণ পৌঁছে দেওয়ার কাজ চলছে। রাজ্য প্রশাসনকে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া মানুষদের কাছে সবরকম সাহায্য পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। মৃতদের পরিবারকে চার লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্য দেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন- পুলওয়ামার পর অনন্তনাগ, সেনার গুলিতে ফের নিকেশ জঙ্গি]

শুক্রবার রাজ্য ত্রাণ কমিশনারের পক্ষ থেকে এসম্পর্কে একটি বিবৃতিও প্রকাশ করা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, ধুলোঝড়ের ফলে বাড়ি ভেঙে ও প্রবল বজ্রপাতের ফলে মইনপুরি জেলায় ছ’জনের মৃত্যু হয়েছে। বৃষ্টি ও ঝড়ের ফলে বিভিন্ন জায়গায় বাড়ি ও গাছ ভেঙে পড়ার কারণে জখম হয়েছেন ৪১ জন। রাজ্য সড়কগুলিতে গাছ ভেঙে পড়ে এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় যে বহুক্ষণ বন্ধ থাকে যান চলাচল। বহু জায়গায় রাস্তার ধারে থাকা হোডিং ও সাইনবোর্ড খুলে পড়ে জখম হয়েছেন অনেকে।

মইনপুরির পাশাপাশি এটাহ‌ এবং কাসগঞ্জ জেলায় তিনজন করে প্রাণ হারিয়েছেন ছ’জন। ফারুখাবাদ ও বারাবাঁকিতে দু’জন করে চারজন। আর মোরাদাবাদ, বদায়ুঁ, পিলভিট, মথুরা, কনৌজ, সম্ভল‌, গাজিয়াবাদ, আমরোহা ও মাহোবা জেলায় মৃত্যু হয়েছে মোট ১০ জনের। পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছায় যে লখনউ-সহ রাজ্যের নানা জায়গায় বহুক্ষণ লোডশেডিং ছিল।

[আরও পড়ুন- ‘বাবার চাকরি ফিরিয়ে দিন’, মোদিকে ৩৭টি চিঠি লিখে অনুরোধ কিশোরের]

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বেশিরভাগ মানুষই ঘরের মধ্যে ঘুমোচ্ছিলেন। আচমকা প্রবল ধুলোঝড়ের সঙ্গে বৃষ্টি শুরু হওয়ার ফলে কাঁচা বাড়ির দেওয়াল ভেঙে পড়ে। এর ফলে জখম হন প্রচুর মানুষ।

এপ্রসঙ্গে উত্তরপ্রদেশের তথ্যসচিব অবনীশ অবস্থি জানান, মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বিপর্যস্ত জেলাগুলির দায়িত্বে থাকা প্রতিটি মন্ত্রী ও জেলাশাসককে পুরো বিষয়টির উপর নজরদারি চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement