৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাতসকালে গুলির লড়াইের সাক্ষী থাকল খাস রাজধানী দিল্লি। বুধবার সকালে রাজধানীর কনৌট প্লেসে দুষ্কৃতীদের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়ে পুলিশ। বেশ কিছুক্ষণ চলে গুলি বিনিময়। এই সংঘর্ষে ২ জন দুষ্কৃতী আহত হয়েছে। মোট তিনজনকে ঘটনায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে আহত ২জনের চিকিৎসা চলছে।


দিল্লি পুলিশ সূত্রের খবর, সম্প্রতি রাজধানীর আনাচে-কানাচে চোর-ছিনতাইবাজদের প্রকোপ বাড়ছে। সমাজবিরোধীধের আখড়াও বাড়ছে। বাড়ছে ছোট ছোট দুষ্কৃতীদলের সংখ্যা। মঙ্গলবার এমনই এক দুষ্কৃতী দলের সন্ধান পেয়ে তাদের পিছু নেয় দিল্লি পুলিশ। চারজন দুষ্কৃতী সেসময় বাইকে করে তাঁদের আস্তানার উদ্দেশে যাচ্ছিল বলে জানা গিয়েছে। তাদের পিছু নেয় দিল্লি পুলিশের গাড়ি।  কিছুদূর যাওয়ার পর ওই ছিনতাইবাজদের দলের সদস্যরা পুলিশের উপর পালটা গুলিবর্ষণ শুরু করে। কিছুক্ষণ চলে গুলির লড়াই। পুলিশের গুলিতে আহত হয় দুই দুষ্কৃতী। তারপরই তিন দুষ্কৃতীকে ধরে ফেলে দিল্লি পুলিশ।

[আরও পড়ুন: হরিয়ানায় উলটো ফলের ইঙ্গিত নয়া সমীক্ষায়, আশায় বুক বাঁধছে কংগ্রেস ]

ধৃতরা প্রত্যেকেই যুবক। তাদের শানাক্তও করেছে দিল্লি পুলিশ। ধৃত তিন দুষ্কৃতির নাম সেলিম, ইসমাইল এবং সৌদ। এদের মধ্যে সেলিম এবং ইসমাইলের গুলি লাগে। তাদের হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে এই দলের আরেক সদস্য পালিয়ে গিয়েছে। তাঁর খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরে রাতভর গুলির লড়াইয়ে নিকেশ ৩ জঙ্গি, শহিদ এক সেনা আধিকারিক]

এই ঘটনায় রাজধানীর নিরাপত্তা নিয়ে ফের বড়সড় প্রশ্ন উঠে গেল। দিল্লির মতো জায়গায় প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে ঘুরছে দুষ্কৃতীরা। যা রীতিমতো উদ্বেগের ব্যপার। কদিন আগেই সংসদ ভবনের দিকে ধাওয়া করেছিল এক যুবক। যা নিয়ে বেশ সোরগোল পড়ে যায়। তারপর এই ঘটনা ফের রাজধানীর নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিল।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং