BREAKING NEWS

৭ আষাঢ়  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২২ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সোশ্যাল মিডিয়ায় হিংসায় উসকানির অভিযোগ, আইনি জালে ত্রিপুরার তিন সিপিএম নেতা

Published by: Biswadip Dey |    Posted: June 6, 2021 4:31 pm|    Updated: June 6, 2021 7:26 pm

3 Tripura CP(I)M leader's Facebook post creats controversy, case filed | Sangbad Pratidin

প্রণব সরকার, আগরতলা: সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে আইনি জালে জড়ালেন ত্রিপুরা (Tripura) সিপিএমের (CPM) তিন শীর্ষ নেতা। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন রাজ্য বামফ্রন্ট কমিটির আহ্বায়ক বিজন ধর, প্রাক্তন তথ্যমন্ত্রী ও বর্তমান বিধায়ক ভানুলাল সাহা, প্রাক্তন সাংসদ জীতেন্দ্র চৌধুরী। তাঁদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সম্প্রতি সিপিএমের এই তিন নেতাই সোশ্যাল মিডিয়ায় আত্মরক্ষার জন্য প্রতিরোধ গড়ে তুলতে দলীয় ক্যাডারদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন। আরও একধাপ এগিয়ে রাজ্যের প্রাক্তন তথ্যমন্ত্রী বর্তমান বিধায়ক ভানুলাল সাহা প্রয়োজনে অস্ত্রশস্ত্র সংগ্রহ করার জন্যও ডাক দিয়েছিলেন। এই ভাবে হিংসায় উসকানি দেওয়ার অভিযোগে পুলিশের মামলার জেরে তিনজনকেই আইনি নোটিশ দেওয়া হয়। গত দু’দিনে তিনজনই থানায় হাজিরা দেন।

[আরও পড়ুন: করোনা কালে জনসেবায় কী কী করেছে দল? রিপোর্ট নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি]

খানায় জিজ্ঞাসাবাদের সময় রাজ্য বামফ্রন্টের (Left Front) আহ্বায়ক বিজন ধর তাঁর নিজের বক্তব্যে অনড় থাকেন। তিনি বলেছেন, আত্মরক্ষার প্রয়োজনে প্রতিরোধ গড়ার ডাক দিয়েছিলেন তিনি।একই বক্তব্য পার্টির অন্য দুই অভিযুক্ত দুই সিপিএম নেতারও। তাঁদের পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বর্তমান বিরোধী দলনেতা মানিক সরকারও। তিনি বলেছেন, সবার আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে। সিপিএমের তিন নেতা বেআইনি কাজ করেননি বলেই দাবি করেছেন বর্ষীয়ান নেতা। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সিপিএমের ওই তিন নেতার বক্তব্যে সন্তুষ্ট নন তদন্তকারী আধিকারিকরা। পুনরায় তাঁদের থানায় ডাকা হবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য।

তিন বছর আগে রাজ্যে ক্ষমতায় এসেছে বিজেপি। ২০২৩ সালে বিধানসভা নির্বাচনেও জিতে ক্ষমতা ধরে রাখতে চায় তারা। এদিকে হারানো জমি ফিরে পেতে মরিয়া সিপিএমও। এমতাবস্থায় বাম নেতাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ ঘিরে তোলপাড় রাজ্যের রাজনীতি।

[আরও পড়ুন: সুন্দরবনে ত্রাণ দিতে গিয়ে দুর্ঘটনায় মৃত্যু উল্টোডাঙার বাসিন্দার, আহত অনেকে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement