৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বেড়াতে গিয়ে মৃত্যুর মুখে, গভীর খাদে গাড়ি পড়ে নিহত ৫ বাঙালি পর্যটক

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 29, 2019 5:14 pm|    Updated: April 29, 2019 5:27 pm

An Images

শুভদীপ রায়নন্দী, শিলিগুড়ি:  সিকিমে বেড়াতে গিয়ে দুর্ঘটনায় মৃত্যুর মুখে বাঙালি পর্যটকের দল। ৪০০ ফুট গভীর খাদে গাড়ি পড়ে যাওয়ায় মৃত্যু হয়েছে একই পরিবারের মোট ৫ জনের। আহত এক শিশু-সহ ২ জন। জানা গিয়েছে, সকলেই হুগলির বাসিন্দা। ইতিমধ্যেই দেহগুলি ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে সিকিম পুলিশ। 

[আরও পড়ুন: বুথ পরিদর্শনে গিয়ে আক্রান্ত বিজেপি প্রার্থী, কাঠগড়ায় তৃণমূল়]

কয়েকদিন আগে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে সিকিম সফরে যান উত্তর কলকাতার বাসিন্দা পেশায় ব্যবসায়ী সন্দীপ কর। সঙ্গে যান তাঁর পরিবারের আরও ৬ সদস্য। জানা গিয়েছে, রবিবার বিকেলে একটি গাড়িতে সিকিমের স্থানীয় বাবা মন্দিরে পুজো দিতে গিয়েছিলেন ওই পর্যটকেরা। সেখান থেকে ফেরার পথে দুর্ঘটনাগ্রস্ত হয় গাড়িটি। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ৪০০ মিটার নিচে খাদে পড়ে যায় গাড়ি। বিষয়টি টের পেতেই নিকটবর্তী পুলিশ স্টেশনে খবর দেয় স্থানীয়রা। রবিবার রাতেই উদ্ধার কাজে হাত লাগায় পুলিশ ও বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী।

জানা গিয়েছে, বৃষ্টির কারণে উদ্ধার কাজে নেমে বেগ পেতে হয় উদ্ধারকারীদের। এদিন রাতে বেশ কিছুক্ষণ বন্ধ রাখা হয় উদ্ধার কাজ। পরে সোমবার সকালে ফের তল্লাশি শুরু উদ্ধারকারীরা। সূত্রের খবর, এদিন সকালে খাদ থেকে উদ্ধার হয়েছে ৫ জনের দেহ। সিকিম পুলিশ সূত্রে খবর, মৃতরা হলেন, সন্দীপ কর(৪৪), স্নেহাশিস বসু(৫৮), শুভজিৎ বসু(২৬), কোকিলা বসু(৪২) ও সোমা কর(৩২)। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার হয়েছে এক শিশু-সহ ২ জন। মৃত দেহগুলিকে ইতিমধ্যেই ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।  

[আরও পড়ুন: ‘আমার সঙ্গে তৃণমূলের ৪০ জন বিধায়ক যোগাযোগ রেখেছে’, বিস্ফোরক মোদি]

গাড়িটি খাদে পড়ে গেলেও প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন চালক সুরেশ তামাং। ইতিমধ্যেই, তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দন্ডবিধির ২৭৯/৩৩৭/৩৩৮/৩০৪ ‘এ’ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ সূত্রে খবর, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরেই দেহগুলি কলকাতায় পাঠানো হবে। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে সিকিম পুলিশ। বেড়াতে গিয়ে এমন মর্মান্তিক পরিস্থিতিতে শোক বাঁধ মানছে না পরিবারে৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement