BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

NEET ও JEE পিছনোর আবেদন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে বাংলা-সহ ৬ রাজ্য

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 28, 2020 1:35 pm|    Updated: August 28, 2020 2:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আবহে NEET-JEE পরীক্ষা পছিয়ে দেওয়া হোক। এই আবেদন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court) দ্বারস্থ হল বাংলা-সহ ছয় রাজ্য। শুক্রবার বাংলা (West Bengal), ঝাড়খণ্ড (Jharkhand), ছত্তিশগড় (Chhattisgarh), রাজস্থান (Rajasthan), পাঞ্জাব (Punjab) ও মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) তরফে একজন করে মন্ত্রী শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন। গত ১৭ আগস্ট এই মামলায় রায় দিয়ে কেন্দ্রকে সেপ্টেম্বরে পরীক্ষা নেওয়ার অনুমতি দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। সেই রায় পুনর্বিবেচনার আরজি জানিয়েছে এই ছয় রাজ্য।

 

সেপ্টেম্বরের ১-৬ JEE’র মেইনসের পরীক্ষা হওয়ার কথা। ওই মাসের ১৩ তারিখ NEET-এর দিন ধার্য হয়েছে। ইতিমধ্যে দুই প্রবেশিকার অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোডও শুরু হয়েছে। কিন্তু করোনা আবহে পরীক্ষা পিছনোর আবেদন জানিয়েছে ছয় রাজ্য। মহামারী আবহে ছাত্রছাত্রীদের সুরক্ষার কথা ভেবে কেন্দ্রকে পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়ার আবেদন জানিয়েছে একাধিক রাজ্য। এমনকী, প্রধানমন্ত্রীকে দু’বার চিঠি লিখেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। সেই সমস্ত আপত্তি উড়িয়ে পরীক্ষার নেওয়ার বিষয়ে অনড় কেন্দ্র। সুপ্রিম কোর্টও পরীক্ষা স্থগিত রাখতে রাজি হয়নি। কিন্তু হার মানতে রাজি নয় রাজ্যগুলি। ইতিমধ্যে এ নিয়ে কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধীর নেতৃত্ব ভারচুয়াল বৈঠক সেরেছে বিরোধী মুখ্যমন্ত্রীরা। সেখানেই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। সেই প্রস্তাব মেনেই এবার সর্বভারতীয় প্রবেশিকা পরীক্ষা পিছিয়ে দিতে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হল রাজ্যগুলি। 

[আরও পড়ুন: JEE, NEET পিছিয়ে দিলে পড়ুয়াদের সমস্যা বাড়বে, মোদিকে একযোগে চিঠি ১৫০ শিক্ষাবিদের]

এ প্রসঙ্গে এদিন বাংলার শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “পরীক্ষা হবে না কখনওই চাইনি। শুধু বলেছি এই পরিস্থিতি কেটে গেলে পরীক্ষা হোক। এ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জমা দিয়েছি। গোটা দেশে ২৫.৫০ লক্ষ পরীক্ষার্থী পরীক্ষা দেবে। এ রাজ্যে সংখ্যাটা ৭৭ হাজার। তাদের সকলের কথা পুনর্বিবেচনার আর্জি সুপ্রিম কোর্টে আমরা জানিয়েছি।”

[আরও পড়ুন: লাগাতার বিরোধিতার মধ্যেই তিন ঘণ্টায় ডাউনলোড হল ৪ লক্ষেরও বেশি NEET অ্যাডমিট কার্ড]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement