BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

ইয়েদুরাপ্পা মুখ্যমন্ত্রী হোন, প্রার্থনা করে ১০০১ টি সিঁড়ি ভাঙলেন কর্ণাটকের বিজেপি সাংসদ

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: July 19, 2019 9:54 pm|    Updated: July 20, 2019 6:34 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আস্থা ভোট নিয়ে বিতর্ক এখনও শেষ হয়নি। কিন্তু, এর মাঝেই বিএস ইয়েদুরাপ্পাকে কর্ণাটকের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাইছেন বিজেপি সাংসদ শোভা কারান্ডলাজে। এনিয়ে ভগবানের কাছে প্রার্থনাও করেছেন। শুক্রবার সকালে ১০০১টি সিঁড়ি টপকে চামুণ্ডি পাহাড়ে অবস্থিত শতাব্দী প্রাচীন চামুণ্ডেশ্বরী মন্দিরে পৌঁছে দেবীর কাছে ফের একই আবেদন জানালেন তিনি।

[আরও পড়ুন- ‘আজকের মধ্যে আস্থা ভোট করুন’, কুমারস্বামীকে ফের চিঠি রাজ্যপালের]

ওই সময়ে তোলা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, কর্ণাটকের ঐতিহ্যবাহী গোলাপি শাড়ি পরে মন্দিরের সিঁড়িতে উঠছেন উদুপি-চিকমাগলুর সাংসদ শোভা। তাঁর সঙ্গে রয়েছেন স্থানীয় বিজেপির নেতা-কর্মীরা। পাহাড়ি পথে সিঁড়ি ভেঙে উঠতে গিয়ে ঘেমে নেয়ে একসা হচ্ছেন সবাই। কিন্তু, তাতে হাঁটা থামাচ্ছেন না। অবশেষে সবাইকে নিয়ে ১০০১টি সিঁড়ি ভেঙে ৩৩০০ ফুট উপরে থাকা মন্দিরে গিয়ে পুজো দেন শোভা কারান্ডলাজে। বিএস ইয়েদুরাপ্পা যাতে কর্ণাটকের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী হন তার জন্য প্রার্থনা করেন।

পরে এপ্রসঙ্গে তিনি বলেন, “কংগ্রেস ও জেডি(এস)-এর ১৫-১৬ জন বিধায়ক ইস্তফা দিয়েছেন। তাই আস্থা ভোটে আমরাই জয়ী হব বলে আমি আশাবাদী। কারণ, আমাদের কাছে অনেক বেশি বিধায়ক আছে। যদিও এটা এখন রাজ্যপালের বিষয়। তিনিই ঠিক করবেন যে সরকার গড়ার জন্য কাকে ডাকবেন। তবে কর্ণাটকে আমরা সরকার গড়ব বলেই বিশ্বাস করি।”

[আরও পড়ুন-উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মন্ত্রী আজম খান জমি মাফিয়া, ঘোষণা যোগী প্রশাসনের]

বৃহস্পতিবার দিনভর নানা টানাপোড়েনের পর কর্ণাটক বিধানসভার অধিবেশন মুলতুবি হয়ে যায়। ফলে থমকে যায় আস্থা ভোটের প্রক্রিয়া। ক্ষোভ জানিয়ে বিধানসভাতেই রাত কাটান প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা-সহ সমস্ত বিজেপি বিধায়করা। আর শুক্রবার সকালে প্রাতঃভ্রমণ শেষে বিধানসভাতেই প্রাতরাশ সারেন বিজেপি বিধায়করা। এসময়ে তাঁদের সঙ্গে ছিলেন কর্ণাটকের উপমুখ্যমন্ত্রী ও কংগ্রেস নেতা জি পরমেশ্বরও।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement