১৩ মাঘ  ১৪২৬  সোমবার ২৭ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুব্রত বিশ্বাস: ট্রেনে বার্থ দেওয়ার জন্য টিটিই টাকা চাইছেন? স্টেশন বা ট্রেনে খাবারের দাম বেশি নিচ্ছে? পার্সেল বুকিং করতে গেলে বাবুরা টাকা চাইছেন? টেন্ডার পেতে গেলে আধিকারিককে ঘুষ? রেলে ঘটে চলা নানা দুর্নীতিতে লাগাম টানতে এবার কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে রেল। যাবতীয় দুর্নীতি নিয়ে এবার অভিযোগ জানানো যাবে। এজন্য একটি নতুন হেল্পলাইনও চালু করছে। নম্বর– ১৫৫২১০। রেল বোর্ডের চেয়ারম্যানের তত্বাবধানে এই নম্বর চালু করা হচ্ছে। 

চলন্ত ট্রেন বা স্টেশন, সব জায়গাতেই রেলকর্মীদের বিরুদ্ধে উঠে আসে নানা অভিযোগ। অনেক সময় যাত্রীরা সেই অভিযোগ সংশ্লিষ্ট দফতরে জানাতে পারেন না। এই সুযোগে বেড়ে চলেছে নানা অপরাধ। যা সামান্য পদক্ষেপের অভাবে বড় আকার নিচ্ছে। একেবারে সাধারণ কর্মী থেকে ঊর্ধ্বতনের একাংশ জড়িত এই ধরনের কাজে বলেও অভিযোগ।

[আরও পড়ুন : আড়াআড়িভাবে চিরে দেওয়া হয় তলপেট, গড়িয়াহাটে বৃদ্ধা খুনের নৃশংসতায় তাজ্জব পুলিশ]

রেলে কর্তাদের ধারণা, অভিযোগ নেওয়ার পদ্ধতি সহজ হলে অনেকেই অভিযোগ জানাতে পারবেন। ফলে অভিযুক্ত কর্মীর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করতে পারবে রেল কর্তৃপক্ষ। ফলে এই নম্বর চালুর পরিকল্পনা বলে রেল জানিয়েছে। নম্বরটি প্রত্যেক যাত্রীর  নজরে আনতে রেলমন্ত্রক প্রতিটি স্টেশনে জোরদার প্রচার চালাতে বলেছে। পোস্টার ও অ্যাড্রেস সিস্টেমের মাধ্যমে বিষয়টি বারবার ঘোষণা করতে বলা হয়েছে। প্রয়োজনে দুর্নীতি দমন শাখার আধিকারিকদের সঙ্গেও সরাসরি কথা বলা যাবে।

[আরও পড়ুন : ‘দেশের আত্মাকে বাঁচান’, ১৬ জন মুখ্যমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ প্রশান্ত কিশোরের]

প্ল্যাটফর্মে আরপিএফের হয়রানি, সাধারণ কামরার সিট বিক্রি, টিকিট দালাল দৌরাত্ম্য। কর্মী বদলির নামে টাকা চাওয়া, রিজার্ভেশন দপ্তরের দুর্নীতি, চার্জ সিটের বিষয়ে সব দুর্নীতির অভিযোগ জানানো যাবে একটা নম্বরে। যাত্রী সহযোগিতায় এখন একটি হেল্পলাইন রয়েছে, নম্বর ১৮২। এই নম্বরে নির্ধারিত কিছু অভিযোগ নেওয়া হয়। সহযোগিতার জন্য আরপিএফ পদক্ষেপ করে। নতুন নম্বরে বিস্তারিত অভিযোগের পাশাপাশি ভিজিল্যান্স ইন্সপেক্টরদের সঙ্গে কথা বলেও তাঁদের কাছে অভিযোগ দায়ের করা যাবে। এই অভিযোগের তাৎক্ষণিক ব্যবস্থার পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট দফতরের কাছেও পাঠানো হবে অভিযোগটি। অভিযুক্ত কর্মীক বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য যে প্রক্রিয়ার দরকার তাও নেবে বিভাগ। ফোনে এই অভিযোগ জানানোর প্রক্রিয়া চলবে ২৪ ঘণ্টাই।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং