Advertisement
Advertisement
Jammu

খুদের আবেদনে সাড়া, মোদির নির্দেশে কাশ্মীরের প্রত্যন্ত অঞ্চলে শুরু ‘ভাল স্কুল’ নির্মাণ

একটি ভিডিওতে স্কুলের করুণ অবস্থার কথা জানায় তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী।

After Girl's Appeal To PM Narendra Modi Goes Viral and Jammu School Gets Facelift | Sangabad Pratidin
Published by: Kishore Ghosh
  • Posted:April 20, 2023 4:33 pm
  • Updated:April 20, 2023 4:33 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জম্মুর (Jammu) আট বছরের পুঁচকে মেয়ে সিরাত নাজেরের আবেদনে কাজ হল। একটি ভিডিও মারফত তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীটি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Narendra Modi) কাছে আবেদন করেছিল, তাঁদের স্কুল জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। ভাল স্কুল গড়ে দিত হবে। এরপরই বুধবার কাঠুয়া জেলার লোহাই গ্রামের সরকারি স্কুল পরিদর্শনে আসেন জম্মুর স্কুল শিক্ষা বিভাগের ডিরেক্টর ড. রবিশঙ্কর শর্মা। তিনি জানিয়েছেন, দ্রুত স্কুল ভবনের সংস্কার হবে। অতিরিক্ত ক্লাসরুম, লাইব্রেরি এবং শৌচালয় তৈরি হবে। ইতিমধ্যে কাজ শুরুও হয়ে গিয়েছে। তাঁর আবেদনে সাড়া দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছে সিরাত।

গত শুক্রবার তাঁদের স্কুলের করুণ অবস্থার ভিডিও রেকর্ড করে পোস্ট করেছিল সিরাত। এইসঙ্গে ভিডিওতে সহজ ভঙ্গিতে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে বলেছিল, “মোদিজি আমার একটা কথা বলার আছে। এটা আমাদের স্কুল। এটা প্রিন্সিপালের রুম। এখানে মেঝেতে বসতে হয়। এই দেখুন আমাদের স্কুলের মেঝে কত নোংরা। আমাদের ইউনিফর্ম নোংরা হয়ে যায়। মার কাছে বকা খেতে হয়। আমাদের একটা ভাল স্কুল বানিয়ে দিন না প্লিজ।” গোটা স্কুল চত্বর ঘুরে দেখাতে দেখাতে বলে সিরাত।

Advertisement

[আরও পড়ুন: বিরোধী শিবিরে ভাঙন ধরানোর চেষ্টা! এবার শরদ পওয়ারের দ্বারস্থ খোদ আদানি]

এরপরই বুধবার জম্মুর প্রান্তিক স্কুলটিতে হাজির হন জম্মুর স্কুল শিক্ষা বিভাগের ডিরেক্টর ড. রবিশঙ্কর শর্মা। স্থানীয়দের দাবি, গত কয়েক দশকে শিক্ষা বিভাগের একজনও ওই স্কুলে আসেননি। যদিও সেই স্কুলেরই ভোল বদলাতে চলেছে প্রধানমন্ত্রীর নেকনজরে, সিরাতের আবেদনে। রবিশঙ্কর জানিয়েছেন, ২০১৭ সালে বন্ধ হওয়া স্কুলের কাজ নতুন করে শুরু হবে। এইসঙ্গে তিনটি অতিরিক্ত ক্লাসরুম, একটি কম্পিউটার ল্যাব, একটি লাইব্রেরি, চারু ও কারুশিল্পের কক্ষ এবং শৌচাগার তৈরি করা হবে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: গরমে বাড়ির বাইরে ঘুমোতে গিয়ে চিরঘুমে প্রৌঢ়া! মহারাষ্ট্রে বাঘের হামলায় মৃত্যু]

এই ঘটনার পর নতুন ভিডিও রেকর্ড করেছে সিরাত। “ওঁকে মোদি স্যার পাঠিয়েছিলেন। তিনি আমাদের স্কুলের অবস্থা দেখেছেন এবং তিনি আমাদের স্কুল মেরামতও করছেন। আমি খুব খুশি হয়েছি।” আট বছরের পুঁচকে মেয়েকে সবাই তারকা বলছে একথা জেনে সিরাত বলেছে, “আমাদের স্কুল ভবন তৈরির কাজ সম্পূর্ণ হলে তবেই নিজেকে তারকা বলব।”

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ