২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

উত্তরপ্রদেশে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে আটকের জের, দেশব্যাপী বিক্ষোভে কংগ্রেস

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: July 19, 2019 9:21 pm|    Updated: July 20, 2019 11:46 am

After Priyanka Gandhi's detention, Congress plans nationwide protest

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে আটক করার জেরে উত্তেজনা ছড়াল দেশজুড়ে। উত্তরপ্রদেশ-সহ দেশের প্রায় সব রাজ্যেই কংগ্রেস কর্মীরা বিক্ষোভ দেখান বলে জানা গিয়েছে। শুক্রবার সকালে বারাণসী থেকে সোনভদ্রে যাওয়ার সময় প্রিয়াঙ্কাকে আটক করে পুলিশ। এরপরই দেশজুড়ে প্রতিবাদ জানাতে থাকেন কংগ্রেসের নেতা-কর্মী।

[আরও পড়ুন- উপত্যকায় মসজিদের সামনে জঙ্গি হামলা, নিহত পিডিপি নেতার নিরাপত্তারক্ষী]

এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই যোগী সরকারের তীব্র সমালোচনা করে কংগ্রেস-সহ বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। রাহুল গান্ধী টুইট করেন, নিজেদের দোষ ঢাকতেই এই ঘটনা ঘটিয়েছে যোগী সরকার। বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা ভেনুগোপাল বলেন, নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকার জন্যই প্রিয়াঙ্কাকে আটক করেছে যোগী সরকার। এই ঘটনা তাদের ঔদ্ধত্যই প্রকাশ করে। মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা না জানিয়ে বিরোধী নেতাদের টার্গেট করছে রাজ্য প্রশাসন।

এপ্রসঙ্গে যোগী আদিত্যনাথ এবং তাঁর সরকারের তীব্র সমালোচনা করেছেন কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালাও। তিনি টুইট করেন, প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে গ্রেপ্তার করে চুনারে রাখা হয়েছে। এইভাবে কি সোনভদ্রের একটি আদিবাসী পরিবারের ১০ সদস্যের খুনের ঘটনা চাপা দিতে চাইছে উত্তরপ্রদেশ সরকার?

[আরও পড়ুন- শরণার্থীদের রাজধানী হতে পারে না ভারত, সাফ জানাল কেন্দ্র]

গত বুধবার জমি নিয়ে বিবাদের জেরে সোনভদ্র জেলার একটি গ্রামে দুটি গোষ্ঠীর মধ্যে প্রবল সংঘর্ষ হয়। এর জেরে একটি আদিবাসী পরিবারের ১০ জন নিহত হন। আহত হন ২৪ জনেরও বেশি। গুজ্জর ও গোন্ড সম্প্রদায়ের মধ্যে এই বিবাদের জেরে গন্ডগোল হয় বলে জানা গিয়েছে। এই খবর পেয়ে শুক্রবার সকালে মৃতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে সোনভদ্র যাচ্ছিলেন প্রিয়াঙ্কা। কিন্তু, সোনভদ্রের ৮০ কিলোমিটার আগে মির্জাপুরের কাছে তাঁকে আটক করে পুলিশ।

এর প্রেক্ষিতে প্রিয়াঙ্কা বলেন, “আমাদের এভাবে দমানো যাবে না। আমরা শান্তিপূর্ণভাবে নিহতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছিলাম। জানি না, আমাদের কোথায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। নিহতদের সুবিচারের জন্য আমরা যেকোনও জায়গায় যেতে প্রস্তুত।”

যদিও আটক করার অভিযোগ উড়িয়ে দেন ডিজি ওমপ্রকাশ সিং। তিনি জানান, ওই এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি রয়েছে। তাই অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী-সহ কংগ্রেস কর্মীদের নিরাপদ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। প্রশাসনিক নির্দেশেই কংগ্রেস নেত্রীকে আটকানো হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে