২৪  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

দেশের প্রথম হেরিটেজ শহরের স্বীকৃতি পেল আমেদাবাদ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 9, 2017 6:24 am|    Updated: July 9, 2017 6:24 am

Ahmedabad has become India’s first World Heritage City announced by UNESCO

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের নতুন পালক জুড়ল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজ্য গুজরাটের মুকুটে। ভারতের চার মেট্রোপলিটন শহর ও অন্যান্য ঐতিহাসিক শহরকে হারিয়ে হেরিটেজ শহরের স্বীকৃতি পেল আমেদাবাদ। শনিবার পোল্যান্ডের ক্রাকৌয়ে ৪১তম বৈঠকের পর ইউনেস্কো-র ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ কমিটি এই সিদ্ধান্তের কথা জানায়। আর ইউনেস্কোর ঘোষণার পরেই টুইটারে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানি। তিনি লেখেন, ‘দেশের মধ্যে প্রথম হেরিটেজ শহরের তকমা পেল আমেদাবাদ। মনে মনে খুব রোমাঞ্চ অনুভব করছি।’

[ডোনার সঙ্গে কীভাবে জন্মদিন কাটালেন সৌরভ, দেখুন ভিডিও]

একাদশ শতকে তৈরি হওয়া আহমেদাবাদ শহরটি খুবই ঐতিহ্যশালী। এখানে মোট ৩৬টি স্থাপত্য রয়েছে। এছাড়া কয়েকশো গুরুত্বপূর্ণ স্তম্ভও রয়েছে। এই সবকিছুই দেখভালের দায়িত্বে আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া। এর পাশাপাশি আমেদাবাদ মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের একটি বিশেষ বিভাগও রয়েছে। আমেদাবাদের এই সাফল্যের জন্য নিজের খুশির কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও।

[দলীয় হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে পর্ন ক্লিপ পোস্ট, লজ্জায় মাথা হেঁট কংগ্রেসের]

জানা গিয়েছে, আমেদাবাদ ছাড়াও তালিকায় নাম ছিল দেশের রাজধানী দিল্লির। মুম্বইও হেরিটেজ শহর হওয়ার দৌড়ে ছিল। শেষপর্যন্ত অবশ্য বাজিমাত করল মোদির রাজ্যের শহরটিই। তবে এই যাত্রাপথটি মোটেও মসৃণ হয়নি আমেদাবাদের। এর আগে একবার ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ কমিটি ভারতের মনোনয়ন বাতিল করেছিল। জানিয়েছিল, বেশ কয়েকটি জিনিসের উল্লেখ ভারতের মনোনয়ন পত্রে ছিল না। এরপরেই আসরে নামে আমেদাবাদ মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন। তাদের উদ্যোগেই শেষপর্যন্ত আসল সাফল্য। এর ফলে প্যারিস, কায়রোর মতো শহরের সঙ্গে একাসনে বসল আমেদাবাদও। এর আগে ভারতীয় উপমহাদেশ থেকে শ্রীলঙ্কার গল ও নেপালের ভকতপুর ইউনেস্কোর তালিকায় স্থান পেয়েছিল।

[বসিরহাটে অশান্তির নেপথ্যে কারা, জানতে বিচারবিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ মমতার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে