Advertisement
Advertisement

সাংবাদিককে কুকুর বলে বিপাকে নেতা, বহিষ্কৃত দল থেকে

কে এই নেতা জানেন?

AIADMK leader sacked for calling journalists
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:May 28, 2018 3:38 pm
  • Updated:May 28, 2018 3:38 pm

সংবাদ প্রতিজিন ডিজিটাল ডেস্ক: উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ নিল তামিলনাড়ুর শাসক দল এআইএডিএমকে। সাংবাদিকদের ‘কুকুর’ বলার জন্য বহিষ্কৃত করা হল দলেরই এক নেতাকে। তুতিকেরিনের হিংসা নিয়ে রাজ্যের উপ-মুখ্যমন্ত্রী ও পন্নিরসেলভমের একটি সভা ছিল। অভিযোগ, সেখানেই এমন মন্তব্য করেন দলের এক নেতা।

[ পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি সত্ত্বেও কেন ব্যবস্থা নিচ্ছে না কেন্দ্র, সরব মমতা ]

Advertisement

ওই দলনেতার নাম হরি প্রভাকরণ। টুইটারে তিনি সাংবাদিকদের ‘রাস্তার কুকুর’ বলে সম্বোধন করেন। লেখেন, উপ-মুখ্যমন্ত্রীর সফরের সময় হাসপাতালের ভিতর সাংবাদিকদের প্রবেশ করতে দেওয়া উচিত নয়। যেসব রাস্তার কুকুররা বিস্কুটের জন্য চিৎকার করে, তাদের গেটের সঙ্গে বেঁধে রাখা উচিত।

Advertisement

hari

এই মন্তব্যের পরই দল সিদ্ধান্ত নেয়, হরি প্রভাকরণকে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে। তিনি দলের তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগে কাজ করতেন। অবশ্য পরে তিনি টুইটারেই ক্ষমা চেয়ে নেন। বলেন, তিনি যা লিখেছেন, তা একান্তই তাঁর ব্যক্তিগত মতামত। দলের মত নয়। দলের মতামত প্রকাশ করার অধিকার তাঁকে দেওয়া হয়নি। তিনি শুনেছেন, তাঁর টুইটের ফলে অনেকে আঘাত পেয়েছেন। কোনও দলের সঙ্গে তাঁর কোনও শক্রুতা নেই। যাঁরা তাঁর টুইটে আঘাত পেয়েছেন, তাঁদের কাছে তিনি ক্ষমাপ্রার্থী।

তামিলনাড়ুর তুতিকোরিনে প্রতিবাদ ও পুলিশের গুলি চালানোর ঘটনার পর কেটে গিয়েছে প্রায় ছ’দিন। ঘটনায় প্রায় ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছিল। তারা তুতিকোরিনে স্টারলাইট সংস্থার তামা গলানোর কারখানার উৎপাদন বন্ধের দাবিতে জোট বেঁধেছিলেন। প্রতিবাদ চলাকালীন যাঁরা আহত হয়েছিলেন, তাঁদের দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন পন্নিরসেলভম। সেখানে সংবাদমাধ্যমের প্রবেশাধিকার ছিল না।

[ জওয়ানের শিশুকন্যার প্রাণ বাঁচাতে রোজা ভাঙলেন মুসলিম যুবক ]

গত তিন মাস ধরে স্টারলাইট সংস্থার তামা গলানোর কারখানার উৎপাদন বন্ধের দাবি তুলেছিলেন প্রতিবাদকারীরা। কিন্তু তাতে কাজ হয়নি। ফলে তাঁরা প্রতিবাদে নামেন। মঙ্গলবার প্রথম বিক্ষোভ হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গুলি চালায় পুলিশ। তাতে ১৩ জনের মৃত্যু হয়। শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করেন আইনজীবী জিএস মানিস। ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবি জানানো হয়। আগামী সোমবার এই মামলার শুনানি৷

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ