BREAKING NEWS

২৩ শ্রাবণ  ১৪২৭  রবিবার ৯ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

লাদাখ ইস্যুতে লাগাতার আক্রমণ রাহুলের, কড়া জবাব দিলেন অমিত শাহ

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: June 28, 2020 1:56 pm|    Updated: June 28, 2020 4:40 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আলোচনা করতে হলে সংসদে আসুন। সেনা জওয়ানরা যখন সীমান্তে লড়াই করছে, তখন এমন কিছু বলবেন না, যাতে চিন এবং পাকিস্তানের সুবিধা হয়। লাদাখ ইস্যুতে লাগাতার আক্রমণের মুখে রাহুল গান্ধীকে পালটা দিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাফ কথা, সরকার বিতর্কে যেতে ভয় পায় না। আলোচনা করতে হলে ৬২’র যুদ্ধ থেকেই শুরু করতে হবে।

লাদাখে চিনের আগ্রাসন নিয়ে শুরু থেকেই কেন্দ্রের সমালোচনায় মুখর বিরোধীরা। বিশেষ করে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi) প্রধানমন্ত্রীর বিদেশনীতিকে বারবার প্রশ্নের মুখে ফেলেছেন। রাহুলের অভিযোগ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি চিনের সামনে আত্মসমর্পণ করেছেন। চিন ভারতের জমি দখল করে বসে আছে, অথচ মোদি তা স্বীকার পর্যন্ত করতে চাইছেন না। কখনও প্রধানমন্ত্রীকে ‘ভীতু’ বলে কটাক্ষ করেছেন, আবার কখনও নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) পরিবর্তে ‘সারেন্ডার মোদি’ বলে আহ্বান করেছেন। প্রায় প্রতিদিনই টুইটারে সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে দেখা গিয়েছে রাহুলকে। রবিবার সকালেও তিনি টুইটারে ছোট্ট একটি প্রশ্ন রেখেছিলেন সরকারের উদ্দেশ্যে। প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতির প্রশ্ন ছিল, সরকার দেশভক্তি এবং দেশের সুরক্ষা নিয়ে কবে আলোচনা করবে?

[আরও পড়ুন: প্রশ্নের পালটা প্রশ্ন! যুদ্ধের আবহেও চিন যোগ নিয়ে ‘কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি’ বিজেপি-কংগ্রেসের]

কংগ্রেস নেতার এই মন্তব্য নিয়ে প্রশ্ন করা হলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাফ জানিয়ে দেন, “সামনেই সংসদের অধিবেশন। সেখানে আসুন। সরকার আলোচনা করতে ভয় পায় না। ৬২ থেকে আজ পর্যন্ত যা যা হয়েছে, সবকিছু নিয়ে আলোচনা হবে। কিন্তু সেনা জওয়ানরা যখন সীমান্তে লড়াই করছে, সরকার যখন একের পর এক সাহসী পদক্ষেপ করছে, তখন চিন বা পাকিস্তান খুশি হয়, এমন কোনও মন্তব্য করা উচিত নয়।” শাহ বলেছেন, “রাহুলের আত্মবিশ্লেষণ করা উচিত। ওঁর ব্যবহার করা #SurenderModi হ্যাশট্যাগ এখন চিনা এবং পাকিস্তানিরা ব্যবহার করছে। হ্যাঁ, ভারত-বিরোধী অপপ্রচার রুখে দেওয়ার ক্ষমতা সরকারের আছে। কিন্তু কংগ্রেসের মতো এত বড় রাজনৈতিক দলের প্রাক্তন সভাপতির এই ধরনের আচরণ বেদনাদায়ক।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement