১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিহারে চূড়ান্ত আসন রফা, বিজেপিতেই ভরসা নীতীশ-রামবিলাসের

Published by: Tanujit Das |    Posted: December 23, 2018 5:19 pm|    Updated: December 23, 2018 5:19 pm

Amit Shah finalized Bihar Seat-Sharing Formula

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে ততই ঘর গোছাতে ব্যস্ত রাজনৈতিক দলগুলি৷ জল মেপে দর কষাকষিতে করছে শাসক-বিরোধী সব শিবিরই৷ উনিশের মহারণের আগে জোটসঙ্গীদের সঙ্গে বিহারে আসন রফা করে ফেলল বিজেপি৷ নীতীশ কুমারের জেডিইউ ও রামবিলাস পাসওয়ানের এলজেপি-র সঙ্গে লোকসভার আসন বণ্টন চূড়ান্ত করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ৷

[ইউপিএ জমানায় ৯ হাজার মোবাইলে নজরদারি চালিয়েছে কেন্দ্র !]

জানা গিয়েছে, রবিবার পাটনায় এই দুই জোটসঙ্গীর সঙ্গে একান্তে বৈঠক করেন অমিত শাহ এবং সেই বৈঠকেই বিহারে আসন বণ্টন চূড়ান্ত হয়৷ তিন শীর্ষ নেতার বৈঠকে ঠিক হয়েছে, ৪০টি লোকসভা আসনের মধ্যে বিজেপি ও জেডিইউ প্রার্থী দেবে ১৭টি করে আসনে৷ এবং পাসওয়ানের এলজেপি প্রার্থী দেবে ছ’টি আসনে৷ সূত্রের খবর রামবিলাস পাসওয়ানকে রাজ্যসভায় পাঠানোরও আশ্বাস দিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি৷ নীতীশ ও পাসওয়ান ছাড়াও এনডিএ জোটের সদস্য ছিল রাষ্ট্রীয় লোকসমতা দল৷ কিন্তু কয়েকদিন আগেই এনডিএ ত্যাগ করে কংগ্রেসের দিকে ঝুঁকেছেন দলের নেতা উপেন্দ্র কুশওয়াহা৷ এরফলে পাসওয়ানের ‘শাপে বর’ হয়েছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশ৷ কারণ, এরফলে একধাক্কায় চার থেকে ছটি আসন পেয়ে গিয়েছে পাসওয়ানের এলজেপি৷

[চিনের স্নায়ুর চাপ বাড়িয়ে পরীক্ষায় সফল ভারতের অগ্নি-৪ মিসাইল]

গত সপ্তাহেই বিজেপিকে আসন বণ্টন নিয়ে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন রামবিলাস পাসওয়ানের ছেলে চিরাগ পাসওয়ান৷ আসন বণ্টনে তাঁদের গুরুত্ব দেওয়া না হলে, এর ফল ভুগতে হবে বিজেপিকে৷ এমনই হুমকি দেন তিনি৷ এমনকী, বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে আসন বণ্টন নিয়ে কথাবার্তা শুরু করেন রামবিলাসও৷ রবিবারে বৈঠক শেষে সাংবাদিকরা সেই প্রসঙ্গে জানতে চাইলে, এড়িয়ে যান সকলেই৷ অমিত শাহ জানান, জোটের মধ্যে কোনও সমস্যা নেই৷ সকলে একজোট হয়েই নির্বাচনে লড়াই করব৷ বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার জানান, ২০১৯-এ আবারও কেন্দ্রের ক্ষমতায় ফিরবে এনডিএ সরকার৷

[পোর্টব্লেয়ারে জরুরি অবতরণ কলকাতাগামী বিমানের, ক্ষুব্ধ যাত্রীরা]

তিন রাজনৈতিক দলের আসন বণ্টন চূড়ান্ত হতেই, বিজেপি, জেডিইউ ও এলজেপি-কে একযোগে কটাক্ষ করেন লালুপুত্র তথা আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব৷ টুইটে তিনি লেখেন, “নোট বাতিল নিয়ে কেন্দ্রের মোদি সরকারকে প্রশ্ন করেছিল জেডিইউ ও এলজেপি৷ দু’বছর পর এর পুরস্কার পেলেন ওঁরা৷ বিহারে গতবারের ২২টি লোকসভা আসনে জেতার পরেও এবার ১৭টিতে প্রার্থী দিচ্ছে বিজেপি এবং ২টি আসনে জয়ী জেডিইউও প্রার্থী দিচ্ছে ১৭টি লোকসভা আসনে৷ এর থেকেই স্পষ্ট এনডিএ জোটের কী অবস্থা৷”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে