২৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জল্পনা তৈরি হয়েছিল, লালকেল্লা এবং লালচকে একসঙ্গে স্বাধীনতা দিবসের পতাকা উত্তোলন করা হবে। লালকেল্লায় যখন পতাকা উত্তোলন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, তখন শ্রীনগরে তেরঙ্গা ঝান্ডা ওড়াবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। কিন্তু, সেসব জল্পনায় আপাতত ইতি। সূত্রের খবর, ১৫ তারিখ জম্মু-কাশ্মীর বা লাদাখে যাওয়ার কোনও পরিকল্পনা নেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর অমিত শাহর। বরং তিনি ১৭ আগস্ট যেতে পারেন লাদাখ। যদিও, সে খবরেও কোনও সরকারি সিলমোহর নেই।

[আরও পড়ুন: ‘কাশ্মীর আমাদের ছিল না, হবেও না’, সাফ কথা পাকিস্তানি ইমামের]

৩৭০ ধারা বিলোপ এবং কাশ্মীরকে দু’ভাগে ভাগ করার পর থেকেই জল্পনা ছিল ১৫ আগস্ট লালচকে পতাকা উত্তোলন করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী কিংবা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। দিন দুই আগে জল্পনা ছড়ায় অমিত শাহ নিজে নাকি লালচকে পতাকা উত্তোলনে আগ্রহী। ১৫ আগস্ট শ্রীনগর হয়ে ১৬-১৭ আগস্ট লাদাখ এবং লেহ হয়ে দিল্লি ফেরার একটা পরিকল্পনাও নাকি করেছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। অধিকাংশ জাতীয় সংবাদমাধ্যমেই সেই খবর সম্প্রচারিত হয়। কিন্তু, মঙ্গলবার সেসব জল্পনায় জল ঢেলে দিলেন কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক। তিনি জানালেন, লালচকে পতাকা উত্তোলনে অমিত শাহর যাওয়ার সম্ভাবনা নেই। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের এক সূত্র সংবাদসংস্থা এএনআইকে জানিয়ে দিয়েছে, অমিত শাহর এখনই জম্মু-কাশ্মীর সফরের কোনও পরিকল্পনা নেই। ফলে আপাতত লালচকে পতাকা উত্তোলন নিয়ে যাবতীয় জল্পনায় ইতি পড়ল।

[আরও পড়ুন: উন্নাও ধর্ষণকাণ্ডে নির্যাতিতার বাবাকে খুনের অভিযোগ, চার্জ গঠন কুলদীপের বিরুদ্ধে]

এদিকে, জম্মুতে ইতিমধ্যেই যাবতীয় বিধিনিষেধ তুলে দেওয়া হয়েছে। স্কুল কলেজও খুলে গিয়েছে। তবে, উপত্যকায় এখনও জারি রয়েছে কারফিউ। উপত্যকার অধিকাংশ জায়গা এখনও কড়া নিরাপত্তার ঘেরাটোপে। রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক অবশ্য জানিয়েছেন, “কোনওরকম প্রাণহানির সম্ভাবনা যাতে তৈরি না হয় তা নিশ্চিত করতেই এত বিধিনিষেধ। আমরা কাশ্মীরে স্বাধীনতা দিবস অন্য বছরের মতোই পালন করব। ১৫ আগস্টের পর থেকেই ধীরে ধীরে তুলে দেওয়া হবে যাবতীয় বিধিনিষেধ।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং