BREAKING NEWS

১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ২৯ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বানভাসি অসমে উদ্ধারকর্মীর কাঁধে চেপে জল পেরোলেন বিজেপি বিধায়ক, সমালোচনার ঝড়

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: May 19, 2022 8:24 pm|    Updated: May 19, 2022 8:53 pm

An Assam BJP MLA criticised for ‘piggyback ride’ in flood waters | Sangbad

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যদিও কাগজে কলমে বর্ষা আসতে এখনও ঢের দেরি, তবু বন‌্যা কবলিত অসম (Assam)। বানভাসি রাজ্যে গৃহহীন অন্তত চার লক্ষ মানুষ। সরকারি হিসাবে প্রাণ গিয়েছে আটজনের। রাজ্যের এমন ভয়াবহ পরিস্থিতিতে বিজেপি (BJP) বিধায়ক জুতো ভেজালেন না, প্যান্ট ভেজালেন না। বন্য কবলিত এলাকা পরিদর্শন গিয়ে উদ্ধার কর্মীর কাঁধে চেপে জল পেরোলেন। এই দৃশ্য দেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় উঠেল। গেরুয়া শিবিরের বিধায়ককে চরম কটাক্ষ করল রাজ্যের বিরোধী দলগুলিও।

বিধায়কের নাম শিবু মিশ্র (Sibu Misra)। এদিন হজাই জেলায় বন্যা পরিস্তিতি পরিদর্শনে গিয়েছিলেন তিনি। উল্লেখ্য, গত কয়েকদিনের প্রবল বর্ষণে প্লাবিত হয়েছে অসমের (Assam Flood) ২৬টি জেলার ১৫০০-র বেশি গ্রাম। তার মধ্যেও কাছাড় ও হজাইয়ের অবস্থা খুব খারাপ। এদিকে ত্রাণ পৌঁছানো নিয়ে সেখানে হাজারও অভিযোগ উঠছিল। সুবিধা-অসুবিধা সরেজমিনে দেখতেই এদিন সেখানে পৌছান শিবু। কিন্তু তারপর যে কাণ্ড করেন তিনি, তাতেই তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন। নেপথ্যে এএনআইয়ের (ANI) একটি ভিডিও ফুটেজ। যা টুইট করে সংবাদসংস্থাটি।

[আরও পড়ুন: GST কাউন্সিলের সুপারিশ মানতে বাধ্য নয় কেন্দ্র ও রাজ্য, জানাল সুপ্রিম কোর্ট]

ওই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, জলমগ্ন একটি এলাকা। তার মধ্যেই দাঁড়িয়ে আছেন বেশ কিছু মানুষ। আর সাদা শার্ট-ডেনিম ব্লু জিনস আর পায়ে সাদা স্নিকার্স পরা বিধয়াককে কাঁধে করে জল ডিঙিয়ে একটি বোটে তুলে দিচ্ছেন এক উদ্ধারকর্মী।

এএনআইয়ের এই ভিডিও দেখে ক্ষোভ উগরে দিয়েছে নেটিজেনরা। একজন লিখেছেন, রাজ্যের মানুষ চূড়ান্ত দুর্ভোগে আর বিধায়ক তাঁর জুতো বাঁচাচ্ছেন! কেউ লিখেছেন, অমানবিক জনপ্রতিনিধি! ছিঃ ছিঃ! অন্যদিকে বিজেপি বিধায়কের কাণ্ডে নিয়ে চরম কটাক্ষ করেছে কংগ্রেস ও তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূলের কটাক্ষ, “জল এতই গভীর ছিল যে বিজেপি বিধায়ক ওটুকু রাস্তাও হাঁটতে পারলেন না! ওঁর জন্য আলাদা ব্যবস্থার প্রয়োজন হল! যখন রাজ্যের সাড়ে ছয় লক্ষ মানুষ দুর্ভোগ পোহাচ্ছে, তখন বিজেপি বিধায়কের যত্নআত্তিটাই বড় হল!” যদিও যাবতীয় অভিযোগ খণ্ডন করেছেন শিবু।

[আরও পড়ুন: সন্তানের জন্ম দিতে না পারায় ফোনেই তিন তালাক তরুণীকে, স্বামীর বিরুদ্ধে রুজু মামলা]

তিনি জানিয়েছেন, একজন পরিচিত এগিয়ে এসে তাঁকে সাহায্য করতে চেয়েছিলেন বলেই…। শিবু বলেন, “আমি ভাবিনি সংবাদ মাধ্যম বিষয়টিকে এত বড় ইস্যু করে তুলবে।” তাঁর কথায়, “আমি দু’বারের বিধায়ক। এলাকার মানুষ চেনেন, আমার কাজ সম্পর্কে ওয়াকিবহাল। এটা দুর্ভাগ্য যে বিষয়টিকে এমন করে তোলা হল।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে