BREAKING NEWS

২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৭ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

তুতিকোরিনে ক্ষতিগ্রস্তদের পরিবারকে দু’লক্ষ টাকা সাহায্য রজনীকান্তের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 30, 2018 8:36 pm|    Updated: March 29, 2019 5:39 pm

Rajinikanth announces Rs 2 lakh per family of protesters killed in Tuticorin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গ্রামবাসীদের পরিবেশ আন্দোলনকে কেন্দ্র করে পারদ চড়ছে দক্ষিণের রাজনীতিতে৷ বুধবার স্টারলাইট বিক্ষোভে ক্ষতিগ্রস্তদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করে বিতর্কের আগুনে ঘি ঢাললেন তামিল সুপারস্টার রজনীকান্ত৷ আজ, আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলেন রজনীকান্ত৷ পরিবেশ আন্দোলনে নিহতদের পরিজনদের ২ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ ঘোষণাও করেন তিনি৷

[  প্রত্যেক ভারতীয়র আরএসএস-এ যোগ দেওয়া উচিত, দাবি বিজেপি নেতার ]

এদিনের ঘটনাস্থলে পৌঁছে সাংবাদিক বৈঠকে তামিল সুপারস্টার বলেন, ‘‘আমি এবিষয়ে বিশেষ কিছুই বলতে চাই না৷ এখানে কী ঘটেছে জনগণ সবই দেখছে৷ তাই সরকারকে আরও সাবধান হতে হবে৷ এটা এই সরকারের বড় ভুল৷’’  তামিলনাড়ুর উপকূলবর্তী শহর থুদুকুড়ির তুতিকোরিন বেদান্ত গ্রুপের স্টারলাইটের তামা গলানোর কারখানা বন্ধ করার জন্য ইতিমধ্যেই নির্দেশ দিয়েছে তামিলনাড়ু সরকার৷ গত সোমবার, ২৮ মে বেদান্ত স্টারলাইট কপার ইউনিট বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে কে পালানিস্বামী সরকার৷ এমতাবস্থায় দাঁড়িয়ে নতুন করে রজনীকান্তের ঘটনাস্থল পরির্দশন বিতর্কের মাত্রা আরও কিছুটা বাড়িয়ে তুলেছে৷ এর আগেও  তুতিকোরিনের আন্দোলনকারীদের সঙ্গে দেখা করে যান তিনি৷ হাসপাতালে গিয়ে আহতদের সঙ্গেও কথা বলেন তিনি৷ তখনই তিনি আহত ও মৃতদের পরিবারের সদস্যদের পাশে থাকার আশ্বাসও দেন তিনি৷

তুতিকোরিনে আন্দোলনের ঘটনার পিছনে অন্য গন্ধ পাচ্ছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশ৷ এর আগেও এই স্টারলাইট সংস্থার বিরুদ্ধে জমি অধিগ্রহণের নামে কৃষক হত্যার মতো গুরুতর অভিযোগ উঠেছে৷ অভিযোগ, ওড়িশার নিয়ামগিরিতে খনন করার জন্য হাজার হাজার আদিবাসীকে ভিটেমাটি ছাড়া করার চেষ্টা করেছিল ওই সংস্থা৷ আদিবাসীরা প্রতিবাদ করলে, তাঁদের মাওবাদী আখ্যা দিয়ে অত্যাচার করে পুলিশ৷ শেষ অবধি সুপ্রিম কোর্টে জয়ী হয় কোঁধ উপজাতির আদিবাসীরা৷ শীর্ষ আদালতের নির্দেশে বাতিল হয়  প্রকল্প৷

[  ২ লক্ষ টাকা নিয়ে চম্পট পবনপুত্রের, প্রশিক্ষণ দিয়ে প্রকাশ্যে কেপমারি! ]

অভিযোগ, ওই সংস্থাটি মাত্র ৫০৭ কোটি টাকা দিয়ে কেন্দ্র সরকারের লাভজনক সংস্থা ব্যালকোকে কিনেছিল বাজপেয়ী সরকারের আমলে৷ এই হাতবদলের ঘটনার বিরুদ্ধে লাগাতার ধর্মঘট করেছিলেন শ্রমিকরা৷ লড়াই করেছিল ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী অজিত যোগীও৷ কিন্তু, তাতেও কোনও সমাধান হয়নি পরে লোকসভায় পাশ হয়৷ পর্যবেক্ষক মহলের একাংশের অভিযোগ, যে কোম্পানির দাম হওয়া উচিত ছিল ৪ হাজার কোটি টাকার বেশি, সেই কোম্পানির দাম মাত্র ১ হাজার কোটি টাকা দিয়ে ৫১ শতাংশ শেয়ার কেনা হয়৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে