Advertisement
Advertisement
Arvind Kejriwal

‘বিজেপি সিরিয়াল কিলার’, সরকার ভাঙানোর জল্পনার মধ্যেই গেরুয়া শিবিরকে তোপ কেজরির

সূত্রের খবর, সোমবারই আস্থা ভোট হতে পারে দিল্লি বিধানসভায়।

Arvind Kejriwal calls BJP as serial killer amidst rumours about toppling Delhi govt | Sangbad Pratidin
Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:August 26, 2022 6:13 pm
  • Updated:August 26, 2022 7:20 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপিকে (BJP) সিরিয়াল কিলারের সঙ্গে তুলনা করলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। আপ বিধায়কদের ভাঙিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। সেই প্রসঙ্গ টেনে কেজরি (Arvind Kejriwal) বলেছেন, নানা রাজ্যের সরকারকে হত্যা করছে বিজেপি। এবার দিল্লির দিকে হাত বাড়িয়েছে তারা। প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবারই কেজরি দাবি করেছিলেন, প্রত্যেক বিধায়ককে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্য অন্তত কুড়ি কোটি টাকা প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। সাতজন আপ বিধায়ক ইতিমধ্যেই দিল্লি থেকে ‘নিখোঁজ’ হয়ে গিয়েছেন। এহেন পরিস্থিতিতে আগামী সোমবার আস্থাভোট করাতে পারেন কেজরি, এমনটাই শোনা যাচ্ছে সূত্র মারফত। 

দিল্লির বিশেষ অধিবেশনে কেজরি বলেছেন, “আমি আস্থাভোট করাতে চাই। সকলকে দেখিয়ে দিতে হবে যে একজনও আপ বিধায়ক আমাকে ছেড়ে চলে যাননি। কাউকে ভাঙিয়ে নিয়ে যেতে পারেনি বিজেপি।” মণীশ সিসোদিয়ার বিরুদ্ধে আবগারি মামলায় তল্লাশি চালিয়েছিল সিবিআই। সেই প্রসঙ্গ টেনে কেজরি বলেছেন, “মণীশের বাড়ি থেকে ২৫ পয়সাও পায়নি। তারপরেই বিজেপি তাঁকে প্রস্তাব দেয়, কুড়ি কোটি টাকার বিনিময়ে আপ ছেড়ে বেরিয়ে আসুন। মণীশ এই প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় অন্য বিধায়কদের দিকে হাত বাড়িয়েছে বিজেপি।”  

Advertisement

বিজেপির ‘অপারেশন লোটাস‘ (Operation Lotus) সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনার জন্য দিল্লি বিধানসভার একটি বিশেষ অধিবেশন ডাকা হয়েছিল। সেখানে তিনি বলেছেন, “বেশ কয়েকটি রাজ্যের সরকার ফেলে দিয়েছে বিজেপি। এবার তাদের লক্ষ্য দিল্লি (Delhi) সরকারের পতন ঘটানো। আসলে বিজেপি হচ্ছে সিরিয়াল কিলারের মতো। নানা রাজ্যের সরকারকে খুন করছে তারা। প্রত্যেকটি রাজ্যে একইভাবে সরকার ফেলছে বিজেপি।” কেজরি আরও জানিয়েছেন, গত কয়েক বছরে ২৭৭জন বিধায়ককে টাকার বিনিময়ে নিজেদের দলে টেনে নিয়েছে বিজেপি।

Advertisement

[আরও পড়ুন: বিজেপি যোগের হাতছানি, কংগ্রেস ছাড়ার পর কী করবেন আজাদ? মিলল ইঙ্গিত]

বিধায়ক কিনতে এত টাকা কোথা থেকে পাচ্ছে বিজেপি, সে প্রশ্ন তুলেও সরব হয়েছেন কেজরি। তিনি বলেছেন, “জিনিসপত্রের আকাশছোঁয়া দাম। তাছাড়াও সমস্ত জিনিসের উপরে জিএসটি বসিয়েছে কেন্দ্র। এই দুই জায়গা থেকে যা টাকা আসছে তা দিয়েই বিধায়ক কিনছে বিজেপি। সরকারের কোটিপতি বন্ধুদের ঋণ মকুব করতেও সেই টাকা ব্যবহার করছে কেন্দ্র।” প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই বিধায়কদের হাইজ্যাক করে নিয়ে মহারাষ্ট্রের সরকার ফেলে দিয়েছিল বিজেপি। দিল্লিতেও সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হতে পারে অনুমান বিশেষজ্ঞদের।

বিজেপি যে এরকম মতলব কষছে এই অভিযোগ প্রথম তোলেন দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া। তাঁর বাড়িতে সিবিআই হানার দু’দিন পরেই এই দাবি করতে দেখা যায় তাঁকে। তিনি বলেন, বিজেপি তাঁর কাছে এই প্রস্তাব দিয়েছেন, “বিজেপিতে আসুন। সিবিআই-ইডির (ED) সমস্ত মামলা বন্ধ করে দেওয়া হবে।” যদিও বিজেপি সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে। গেরুয়া শিবিরের দাবি, দুর্নীতির অভিযোগে বিদ্ধ আপ এখন সেদিক থেকে নজর ঘোরাতেই এমন অভিযোগ করছে।

[আরও পড়ুন:আজাদের ইস্তফায় পরিকল্পনা বদল কংগ্রেসের, রাহুল বা গেহলট নন, রাশ সোনিয়ার হাতেই]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ