BREAKING NEWS

১৪ কার্তিক  ১৪২৭  রবিবার ১ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দিল্লিতে ধোঁয়াশা কাটাতে কৃত্রিম বৃষ্টির চিন্তা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 7, 2016 8:44 am|    Updated: October 11, 2020 8:17 pm

An Images

দেবশ্রী সিনহা, নয়াদিল্লি: ধোঁয়াশা কাটাতে কৃত্রিম বৃষ্টি নামানোর কথা ভাবছে দিল্লি৷ চিন এই পদ্ধতি অনুসরণ করে সাফল্য পেয়েছে৷ এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় পরিবেশ মন্ত্রী অনিল দাভের সঙ্গে কথা বলেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল৷ মন্ত্রিসভার কাছেও রেখেছেন প্রস্তাব৷ তবে ওই প্রযুক্তি দূষণ কাটাতে কতটা সক্ষম হবে, বা আদৌ সক্ষম হবে কি না তা খতিয়ে দেখে তবেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন কেজরি৷ রাজধানীর দূষণ নিয়ন্ত্রণে আনতে রবিবারই দশ দফা দাওয়াই বাতলেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল৷ আগামী তিন দিন দিল্লির সমস্ত স্কুল বন্ধ রাখা ছাড়াও দিল্লিবাসীকে বাড়ির ভিতরেই থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি৷ প্রয়োজনে বা সম্ভব হলে অফিসের কাজও বাড়িতে বসেই করার পরামর্শ দিয়েছেন কেজরি৷

গত ১৭ বছরে রাজধানীর দূষণমাত্রা এই প্রথম এত ভয়াবহ পরিস্থিতির মুখোমুখি হল৷ খোদ দিল্লি হাই কোর্ট এই পরিস্থিতিকে ‘গ্যাস চেম্বারের ভিতর বসবাস করার’ সঙ্গে তুলনা করেছে৷ কেজরি নিজেও এদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিক বৈঠকে দূষণ প্রতিরোধে দশ দফা দাওয়াই দেন৷ বলেন, আগামী আরও তিন দিন দিল্লির সব স্কুল বন্ধ থাকবে৷ পাঁচদিন কোনও নির্মাণ বা ভাঙার কাজ করা যাবে না৷ হাসপাতাল ও এমার্জেন্সি ছাড়া আগামী ১০ দিন কোথাও ডিজেল জেনারেটর চলবে না৷ যে সমস্ত বিদ্যুৎসংযোগহীন এলাকায় ডিজেল জেনারেটরের মাধ্যমে বিদ্যুত্‍ সরবরাহ করা হয়, সেই সব এলাকায় দিল্লি সরকারের তরফে বিদ্যুত্‍ পরিষেবা দেওয়া হবে৷ আগামী ১০ দিন বন্ধ রাখতে হবে কয়লা চালিত বদরপুর পাওয়ার প্ল্যাণ্ট৷ কোথাও যাতে গাছের পাতা বা আবর্জনা না পোড়ানো হয়, সেদিকে কড়া নজর রাখার ব্যবস্থা করা হবে৷ পরিবেশ মন্ত্রকের তরফে এ ব্যাপারে নজর রাখতে চালু করা হবে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনও৷ এছাড়া ১০ নভেম্বর থেকে শুরু হবে রাস্তার ভ্যাকুয়াম ক্লিনিংয়ের কাজ৷ সোমবার থেকে রাস্তায় জল ছিটানোর কাজও শুরু হচ্ছে৷ দিল্লিবাসীকে দিনের বেশিরভাগ সময় ঘরের ভিতরেই থাকার পরামর্শ দিয়েছেন কেজরি৷ সেই সঙ্গে জানিয়েছেন, প্রয়োজন পড়লে দিল্লির রাস্তায় ফের জোড়-বিজোড় নীতি চালু করা হবে৷

দিল্লির দূষণের মাত্রা সরকারিভাবে নিরাপদ মাত্রার চেয়ে বারো গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে৷ তবে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নিরিখে তা ৭০ গুণ বেশি৷ বিশ্বের দূষিত শহরগুলির মধ্যেও দিল্লি উপরের সারিতেই রয়েছে৷ এর গুরুতর প্রভাব পড়ছে দিল্লিবাসীর স্বাস্থ্যে৷ হাসপাতালগুলি জানিয়েছে, গত কয়েকদিনে শ্বাসকষ্ট নিয়ে আসা রোগীর সংখ্যা বেড়েছে কম করেও ৬০ শতাংশ৷ পরিস্থিতির মোকাবিলায় তাই সোমবারই দিল্লিবাসীকে দূষণ থেকে বাঁচার উপায় জানিয়ে বুলেটিন প্রকাশ করছে দিল্লির স্বাস্থ্য দফতর৷ এ ব্যাপারে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করেছে তারা৷ মাস্কের ব্যবহার এতটাই বেড়ে গিয়েছে যে, চাহিদার সঙ্গে তাল রেখে জোগান দিতে পারছেন না ব্যবসায়ীরা৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement