BREAKING NEWS

২৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ১০ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

‘গুজরাট দাঙ্গায় লাভ একমাত্র মোদির’, বললেন রক্তাক্ত সংঘর্ষের মুখ অশোক পারমার

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: November 24, 2022 9:02 am|    Updated: November 24, 2022 9:04 am

Ashok Parmar Says, Narendra Modi is the only gainer of Gujrat Riots | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাথায় গেরুয়া ফেট্টি বাঁধা, এক হাত আকাশে তোলা, অন্য হাতে লোহার রড, হিংস্র আস্ফালনে মত্ত এক যুবক! অশোক পারমারকে (Ashok Parmar) ভুলে যাওয়া সম্ভব নয়। ২০০২ সালে গুজরাট (Gujarat) দাঙ্গার মুখ হয়ে উঠেছিলেন তিনিই। হিন্দু সন্ত্রাসের মুখ হিসাবে তাঁর ছবি তখন ছড়িয়েছে দেশ-বিদেশের পত্র-পত্রিকায়। সেই তিনিই গুজরাট নির্বাচনের আগে রাজ্যে ক্ষমতাসীন বিজেপি-কে (BJP) অস্বস্তিতে ফেলে জানিয়ে দিলেন, গোধরা দাঙ্গার হিংসায় হিন্দু কিংবা মুসলিম, কারওই কোনও লাভ হয়নি। দাঙ্গায় যদি কেউ লাভবান হয়ে থাকেন, তবে তিনি হলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)।

দাঙ্গার কারণে মোদির নামই ছড়িয়ে পড়ল এবং তাঁর প্রধানমন্ত্রী হওয়ার রাস্তা চওড়া হল। পারমার বলেন, ‘হিন্দুত্বের নামেই গুজরাটে দশ বছর মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন মোদি। আর তার জেরেই আরও উন্নতি ঘটল তাঁর। তিনি মুখ্যমন্ত্রী থেকে প্রধানমন্ত্রিত্বে উন্নীত হলেন। অথচ এতে দুই সম্প্রদায়ের মানুষের কোনও উন্নতি হল না!’

[আরও পড়ুন: ভোটপ্রচারে ভারতীয় দলের জার্সি গায়ে জাদেজার ছবি, বিতর্কে অলরাউন্ডারের স্ত্রী]

পারমারের সংযোজন, ‘একটা সময়ে আরএসএস (RSS) এবং বিজেপি কর্মীরা ছাড়া মোদিকে তেমন কেউই আলাদা করে গুরুত্ব দিতেন না। কিন্তু ২০০২ সালের গোধরা দাঙ্গা (Godhra Riots)  মোদিকে এক বিরাটাকার হিন্দু নেতায় পরিণত করল। আর এই অবস্থাটারই পূর্ণ সদ্ব্যবহার করলেন উনি।’ পাশাপাশি, মোদির গুজরাট মডেলের চূড়ান্ত সমালোচনা করে পারমার এমনও বলেন, ‘গুজরাট মডেলে রাজ্যের দলিত, দরিদ্র এবং মুসলিমদের কোনও লাভই হয়নি। ওঁদের কাছে এই মডেলের কোনও মূল্যই নেই।’

[আরও পড়ুন: অবিবাহিত মৃত যুবকের সংরক্ষিত বীর্যে অধিকার কার, কেন্দ্রের মত চাইল হাই কোর্ট]

পুরনো সেই ছবিটির প্রসঙ্গে পারমার সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘ছবিটা যখন তোলা হয়েছিল, তখন আমি বিজেপি কিংবা আরএসএস কারওই সমর্থক ছিলাম না। কিন্তু আমার মুখটা জনপ্রিয় হয়েছিল হিন্দু-মুখ হিসাবে। একটা দলিত সম্প্রদায়ের মুখ এভাবে জনপ্রিয়তা পেয়ে যাওয়াটা বিজেপি-আরএসএস মোটেই পছন্দ করেনি। জেনে রাখুন, ওরা এখনও দলিত মানুষকে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ হিসাবে মানতে চায় না!’

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে