১৪ চৈত্র  ১৪২৬  শনিবার ২৮ মার্চ ২০২০ 

Advertisement

বেবি মাফলারম্যান থেকে ‘দিল্লির নির্মাতা’রা, কেজরির শপথ মঞ্চ আলো করলেন আম আদমিরাই

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: February 16, 2020 2:22 pm|    Updated: February 16, 2020 2:22 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লিবাসীর অকুণ্ঠ ভালবাসা নিয়ে রবিবার তৃতীয়বার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। জমজমাট রামলীলা ময়দানে এদিন শপথের মঞ্চে আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু ছিল ‘দিল্লির নির্মাতা’রা। সাফাইকর্মী থেকে বাস-অটোচালক, স্কুল শিক্ষক, চিকিৎসক, মেধাবী পড়ুয়ারাই আম আদমি পার্টির ভাষায় আদর্শ দিল্লির প্রকৃত নির্মাতা। কিন্তু সবাইকে ছাপিয়ে নজর কাড়ল ‘বেবি মাফলারম্যান’। কেজরিওয়ালের সাজে দেড় বছরের আভ্যান তোমারকে এদিন দেখা যায় শপথের অনুষ্ঠানে। যাকে নিয়ে দিল্লি নির্বাচনের ফলপ্রকাশের দিন থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় উন্মাদনা।

গত ১১ ফেব্রুয়ারি ফলাফল প্রকাশের দিন আম আদমি পার্টির জয়োল্লাসের শরিক হয়েছিল এই শিশু। তাঁর ছবি ভাইরাল হয়ে যায় ইন্টারনেটে। তারপর শপথগ্রহণের অনুষ্ঠানে আম আদমি পার্টির তরফ থেকে তাকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। রবিবার রামলীলা ময়দানে শপথের মঞ্চের ঠিক নিচেই আমন্ত্রিতদের মধ্যে ছিল এই বিশেষ অতিথি। এছাড়াও এদিন ৫০ বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন। তাদেরকেই দিল্লির নির্মাতা হিসাবে তকমা দিয়েছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল ও তাঁর দল। এরা হলেন সাফাইকর্মী, বাস-অটোচালক, বাসের মার্শাল, শিক্ষক-অশিক্ষক কর্মী, চিকিৎসক এবং মেধাবী পড়ুয়ারা। কেজরিওয়ালের শপথের মঞ্চে দাঁড়িয়ে বসেন, দিল্লির প্রকৃত নির্মাতা এরাই। আম আদমি পরিবেষ্টিত হয়েই এদিন শপথ নেন কেজরিওয়াল।

[আরও পড়ুন: ‘বিরোধীদের ক্ষমা করে দিয়েছি’, শপথের মঞ্চে আক্রমণের জবাব দিলেন কেজরিওয়াল]

এদিন কেজরিওয়াল বলেছেন, বিভেদ ও বৈষম্যের রাজনীতির উর্ধ্বে উঠে কাজের রাজনীতিকে অগ্রাধিকার দিয়েছেন তিনি। এবং আগামিদিনেও উন্নয়নের স্বার্থেই কাজ করে যেতে বদ্ধপরিকর বলে জানিয়েছেন তিনি। তাঁর বিনামূল্যে পরিষেবা দেওয়ার জন্য বিজেপি বারবার আক্রমণ শানিয়েছে। তাঁর জবাবও এদিন দিয়েছেন কেজরি। বলেছেন, ‘পৃথিবীতে যাবতীয় অমূল্য জিনিসই ভগবান বিনামূল্যে দিয়েছেন। সরকারি স্কুলে পড়ার জন্য পড়ুয়াদের থেকে টাকা নেব কেন? সরকারি হাসপাতালে মানুষ কেন বিনামূল্যে চিকিৎসা পাবেন না। কেজরিওয়াল দিল্লিকে ভালবাসেন, দিল্লির মানুষও কেজরিওয়ালকে ভালবাসেন। ভালবাসার কোনও মূল্য হয় না।’

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement