BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

জাল ওয়েবসাইটে তৎকাল টিকিটের রমরমা, সতর্কতা রেলের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 21, 2016 9:50 am|    Updated: May 21, 2016 9:54 am

An Images

সুব্রত বিশ্বাস: বেসরকারি বেশ কিছু ওয়েবসাইটে যাত্রীরা তৎকাল টিকিট কেটে সর্বস্বান্ত হচ্ছেন৷ ওই সব ওয়েবসাইটকে রীতিমতো ‘ফেক ওয়েবসাইট’ বলে জানিয়ে যাত্রীদের সতর্ক করে দিয়েছে রেল৷ সাইটগুলিও তারা জনসমক্ষে এনেছে৷ সেগুলি ‘আইআরসিটিসিতৎকালসেবা’, ‘তৎকালটাইমসনাউ’, ‘তৎকালসফটওয়্যার’, ‘তৎকালনাউ’। রেল জানিয়েছে, এই সাইটগুলি আইআরসিটিসি-র অনুমোদিত নয়৷ এমনকী সরকারের সঙ্গে কোনওরকম চুক্তিবদ্ধও নয়৷ ফলে সেই ওয়েবসাইটে তৎকাল টিকিট কাটলে বিপদ অনিবার্য বলে জানিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ৷
দক্ষিণ-পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক সঞ্জয় ঘোষ জানিয়েছেন, সাইটগুলি তৎকাল টিকিট কাটার সময় ব্যাঙ্কের পারসোন্যাল ডিটেল নিয়ে তাদের ডাটাতে সংগ্রহ করে রাখে৷ পরে সুযোগ বুঝে যাত্রীর ব্যাঙ্ক থেকে সমস্ত টাকা তুলে নিচ্ছে বলে অভিযোগ পেয়েছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্তারা৷ একদিকে প্রতারিত হওয়ায় একশো শতাংশ সম্ভাবনা৷ অন্যদিকে তৎকাল চার্জের নামে পকেট কাটা হচ্ছে যেমন খুশি৷ ১৫ থেকে ৪৫ সেকেন্ডের মধ্যে টিকিট কাটার নিশ্চিত সুবিধার নামে দু’টি পিএনআরের ক্ষেত্রে সাইট চার্জ ২,১০০ টাকা ও ছ’টির জন্য ৩,৫০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে৷ যা অতিরিক্ত বলে আইআরসিটিসি জানিয়েছে৷
আইআরসিটিসির অনুমোদন ছাড়া দ্বিতীয় কোনও সংস্থাকে তৎকাল টিকিটের জন্য অনুমতি দেয়নি ভারতীয় রেল বলে তারা জানিয়েছে৷ রেলের কাউন্টার থেকে একদিন আগে ১০টার সময় তৎকাল টিকিট বুক করা যায়৷ ১১টার সময় অনুমোদিত ওয়েবসাইটের মাধ্যমে তৎকাল টিকিট বুকিং করা যায়৷
ফলে, অন্য কোনও সংস্থার ওয়েবসাইটে তৎকাল টিকিট বুকিং করার অর্থ- টিকিটের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত, বাড়তি টাকা দেওয়া ও ভবিষ্যতে নিজের অ্যাকাউন্টের টাকা খোয়ানো বলে জানিয়েছে রেল৷ ঝামেলা এড়াতে যাত্রীদের আগাম সচেতন করতে প্রচার শুরু করতে চায় রেল৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement