BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৫ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

কৃষি বিলের প্রতিবাদে সংসদ চত্বরে বিক্ষোভ বিরোধীদের, সাক্ষাৎ রাষ্ট্রপতির সঙ্গেও

Published by: Biswadip Dey |    Posted: September 23, 2020 1:40 pm|    Updated: September 23, 2020 3:25 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিতর্কিত কৃষি বিল (Farm Bills) নিয়ে এবার রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ হওয়ার সিদ্ধান্ত বিরোধীদের। বুধবার বিকেল পাঁচটায় রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন রাজ্যসভার (Rajya Sabha) বিরোধী দলনেতা গুলাম নবি আজাদ (Ghulam Nabi Azad)। প্রসঙ্গত, মঙ্গলবারই কৃষি বিল নিয়ে প্রতিবাদে মুখর হয়ে সংসদ বয়কটের ডাক দেয় বিরোধীরা।

রবিবার ওই বিল নিয়ে রাজ্যসভায় বিরোধীরা তীব্র প্রতিবাদে শামিল হন। কেন্দ্রীয় সরকারের পেশ করা দুটি কৃষি বিল নিয়ে প্রতিবাদের মাঝে ওয়েলে নেমে পড়েন বিরোধী সাংসদরা। অভিযোগ, টেবিলে উঠে মাইক ভেঙে রুলবুক ছিড়ে প্রতিবাদ জানাতে থাকেন তাঁরা। পরে সোমবার রাজ্যসভার চেয়ারম্যান এম ভেঙ্কাইয়া নায়ডু সরকারের আবেদনে সাড়া দিয়ে সাসপেন্ড করেন বিরোধীপক্ষের আট সাংসদকে। যার পর বিরোধীদের বিক্ষোভ তীব্র আকার ধারণ করে।

[আরও পড়ুন: শীঘ্রই ভারতেও শুরু হতে পারে রাশিয়ার ভ্যাকসিনের ট্রায়াল, জানাল রেড্ডি’স ল্যাব]

পরে সাসপেন্ড হওয়া সাংসদরা ধরনা শুরু করেন। মঙ্গলবার সকালে ধরনারত সাংসদদের চা খাইয়ে নিজেই অনশন শুরু করেন ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ নারায়ণ সিং। বুধবার তিনি তাঁর অনশন ভঙ্গ করেছেন।গুলাম নবি আজাদ জানাচ্ছেন, সরকারের এমন একটা বিল আনা উচিত যার দ্বারা সরকারের হাতে ক্ষমতা থাকবে ফসলের ন্যূনতম সমর্থিত মূল্য বা এমএসপি স্থির করার। এমএস স্বামীনাথনের সুপারিশ মেনে ওই মূল্য স্থির করতে হবে। কৃষকদের থেকে ফসল কেনার সময় নির্ধারিত এমএসপি মেনেই কিনতে।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে হেঁটে বাড়ি ফিরেছেন ১ কোটিরও বেশি পরিযায়ী শ্রমিক, জানাল কেন্দ্র]

এই দাবিগুলি রাষ্ট্রপতির কাছে তোলার পাশাপাশি সাসপেন্ড হওয়া সাংসদদের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার দাবিও তিনি জানাবেন বলে জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতা। বুধবারই সংসদে গুলাম নবি আজাদের অফিস কক্ষে বিরোধীরা একটি বৈঠকও করবেন বলে জানা গিয়েছে। এদিকে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতের আগে আজ সংসদ চত্বরেও একত্রিত হয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন বিরোধী শিবিরের সব সাংসদ। আসলে বিরোধীরা চাইছে যেনতেনপ্রকারে এই কৃষি বিলটি আটকে দিতে। 

এদিকে সাসপেন্ড সাংসদদের সম্পর্কে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ মঙ্গলবারই সাংবাদিকদের জানিয়ে দেন, ‘‘সাসপেনশন তুলে নেওয়ার ব্যাপারে আমরা তখনও চিন্তাভাবনা করব যখন সাসপেন্ড হওয়া সাংসদরা তাঁদের আচরণের জন্য ক্ষমা চাইবেন।’’ রাজ্যসভায় কক্ষের নেতা থাওয়ারচন্দ গেহলতও এই মত জানিয়েছেন।   

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement