৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আহত ISIS জঙ্গিদের চিকিৎসার জন্য অ্যাপ তৈরি, বেঙ্গালুরু থেকে গ্রেপ্তার ‘জেহাদি’ ডাক্তার

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 19, 2020 2:49 pm|    Updated: August 19, 2020 2:49 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (ISIS) সঙ্গে সম্পর্কের অভিযোগে বেঙ্গালুরু থেকে গ্রেপ্তার চিকিৎসক। সোমবার রাতে আবদুর রহমান নামের চক্ষু বিশেষজ্ঞকে জঙ্গিদের চিকিৎসা ও অস্ত্রের বিষয়ে সাহায্য করার অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (NIA)।

[আরও পড়ুন: ঋণ শোধের আগেই মালিকের মৃত্যু, আগ্রায় যাত্রীবোঝাই বাস হাইজ্যাক করল ফিনান্স কোম্পানি]

NIA সূত্রে খবর, ইসলামিক স্টেটের সক্রিয় সদস্য বছর আঠাশের ওই চিকিৎসক এমএস রামাইয়া মেডিক্যাল কলেজে কর্মরত। ভারতে জঙ্গি কার্যকলাপ প্রসারে উদ্যোগী ইসলামিক স্টেট খোরাসান প্রভিন্সের (ISKP) বিষয়ে তদন্ত চলাকালীনই আবদুর রহমানের নাম উঠে আসে। সংগঠনটির সঙ্গে জড়িত সে। তদন্তকারীদের দাবি, আবদুর গোপনে জঙ্গিদের চিকিৎসা প্রদান করার বিষয়ে কাজ করত। ২০১৪ সালে ডাক্তারি পাশ করেই আবদুর জঙ্গিদের চিকিৎসায় সাহায্য করতে সিরিয়া যায়। সেখানে তাদের সুশ্রষার কাজ করে সে। ১০ দিন তাদের ক্যাম্পে থেকে ভারতে ফিরে আসে সে। শুধু তাই নয়, অস্ত্রের বিষয়েও বিভিন্ন দায়িত্ব ছিল তার কাঁধে। এছাড়া, যুদ্ধক্ষেত্রে আহত ISIS জঙ্গিদের চিকিৎসার জন্য একটি অ্যাপ তৈরি কাজও করছিল সে।

জাতীয় তদন্তকারী সংস্থার মুখপাত্র সোনিয়া নারং জানিয়েছেন, তদন্তকারীদের প্রশ্নের উটরে সিরিয়ার আইএস-এর মাথাদের সঙ্গে মেসেজের মাধ্যমে নিয়মিত যোগাযোগ রাখার কথা স্বীকার করেছে আবদুর। কোথাও জঙ্গি হানা চালানোর সময়ে আহত হলে জঙ্গিরা কীভাবে নিজেদের সুশ্রষা করবে সেই নিয়েই মূলত কাজ করছিল সে। তাছাড়া আইএস জঙ্গিদের অস্ত্রের ব্যবহারের বিষয়েও পরামর্শদাতা ছিল সে। চলতি বছর মার্চে জাহানজাইব সামি ওয়ানি ও তার স্ত্রী হিনা বাশির বেইগকে জামিয়া নগর থেকে গ্রেপ্তার করে দিল্লি পুলিশেরর স্পেশ্যাল ব্রাঞ্চ। এর পরেই ক্রমশ জালে আসতে শুরু করে ISKP-এর একের পর এক মাথা।

উল্লেখ্য, ইরাক ও সিরিয়াই জমি খুইয়ে ভারত, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশে নিজের উপস্থিতি বাড়াতে চাইছে ইসলামিক স্টেট। পকিস্তান ও আফগানিস্তানে অনেক দিন আগেই মজবুত ঘাঁটি তৈরি করে ফেলেছে আইএস। এদেশে তামিলনাড়ু ও কেরলে বিশেষ তৎপর জঙ্গি গোষ্ঠীটি। এর প্রভাব রয়েছে পশ্চিমবঙ্গেও। গত কয়েক বছরে দেশের বিভিন্ন রাজ্য থেকে ১৫৫ জন ইসলামিক স্টেট সমর্থককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সব মিলিয়ে ভারতের প্রভাব বিস্তারের আপ্রাণ চেষ্টা করছে আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট তা স্পষ্ট।

[আরও পড়ুন: কংগ্রেস সভাপতি হোক গান্ধী পরিবারের বাইরে থেকে, এবার রাহুলের সুর প্রিয়াঙ্কার গলাতেও]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement