১১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ২৬ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

টার্গেট সাধারণ নির্বাচন, বিরোধীদের মোকাবিলায় অমিতের অস্ত্র ২২ দফা কৌশল

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 1, 2018 2:04 pm|    Updated: July 1, 2018 2:04 pm

Bharatiya Janata Party has finalised a 22-point action plan to win

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনকে টার্গেট করে ইতিমধ্যেই ২২ দফা রণকৌশল তৈরি করে ফেলেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ৷ যা ইতিমধ্যে পৌঁছে গিয়েছে প্রতিটি রাজ্য নেতৃত্বের কাছে৷ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, যুদ্ধকালীন তৎপরতায় এই ২২টি কৌশল পূরণ করতেই হবে গেরুয়া শিবিরের প্রত্যেক রাজ্য নেতাদের৷ সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই রাজ্যভিত্তিক প্রতিটি বুথগুলিকে চারটি শ্রেণিতে ভাগ করে ফেলেছে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব৷ তৈরি হয়ে গিয়েছে স্মার্ট ফোন ব্যবহারকারী ভোটারের তালিকা৷ সেই মতো তৈরি হচ্ছে প্রচার পরিকল্পনা৷ পাশাপাশি, নির্বাচনের আগে ও নির্বাচনের দিনগুলিতে বুথভিত্তিক বাইক বাহিনী তৈরি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাজ্য নেতৃত্বকে৷

[মেয়াদ শেষ রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যানের, পদ দখলে তৎপর বিরোধী শিবির]

গত ১০ জুন, ছত্তিশগড় সফর দিয়ে রাজ্যভিত্তিক বিজেপির সাংগঠন চাঙ্গা করার কাজ শুরু করে দিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ৷ সম্প্রতি ঘুরে গিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গে, রবিবার যাবেন ওড়িশায়৷ জানা গিয়েছে, প্রতিটি রাজ্যে গিয়ে কয়েকটি বুথের নেতাদের সঙ্গে একক ভাবে কথা বলার পরিকল্পনা নিয়েছেন মোদির নির্ভরযোগ্য সেনাপতি৷ তাঁদের কাছে নিজেই পৌঁছে দিচ্ছেন প্রচারের বিষয়বস্তু৷ কেন্দ্রীয় সরকারের কোন কোন জনমোহিনী প্রকল্পগুলিকে সামনে রেখে প্রচার চালানো হবে সেই বিষয়ে বুথ থেকে শুরু করে রাজ্যের নেতারা স্পষ্ট নির্দেশ দিচ্ছেন তিনি৷ এখানেই শেষ নয়৷ নয়াদিল্লি সূত্রে খবর, রাজ্য নেতৃত্বের কাছ থেকে পাওয়া সাংগঠনিক তথ্যের ভিত্তিতে বিজেপির শীর্ষ নেতারা দেশের সমস্ত বুথগুলিকে এ,বি,সি ও ডি এই চার ভাগে ভাগ করেছে৷ এক্ষেত্রে ‘এ’ তালিকাভুক্ত করা হয়েছে সেই সমস্ত বুথকে যেখানে একক আধিপত্য রয়েছে গেরুয়া শিবিরে৷ ‘ডি’ তালিকায় রাখা রয়েছে এমন বুথগুলিকে যেখানে এখনও পদ্মের শিবিরের কুঁড়ি ফোটেনি৷ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, তৃণমূল স্তরে মানুষের মধ্যে মিশে গিয়ে প্রচার চালাতে হবে সেই সমস্ত স্তরে৷ তৈরি করে ফেলতে হবে বুথ কমিটি৷

[কেন আটকে বিধায়কের ছেলের স্করপিয়ো? রাস্তায় ফেলে বেধড়ক মার অন্য গাড়ির চালককে]

কেবল সংগঠনই নয়, সূত্রের খবর, বিরোধীদের সঙ্গে পাল্লা দেওয়ার জন্য বুথভিত্তিক ‘ক্যাডার’ বাহিনী তৈরিরও নির্দেশ পৌঁছে গিয়েছে প্রতিটি রাজ্য নেতৃত্বের কাছে৷ বলা হয়েছে, দখল আটকাতে বুথ ভিত্তিক বাইক বাহিনী তৈরি করার৷ যাতে এক একটি ভোট গ্রহণ কেন্দ্রকে রক্ষা করতে পারে বাইক বাহিনীর পাঁচ জন করে সদস্য৷ নয়াদিল্লি সূত্রে খবর, আগামী নির্বাচনে প্রযুক্তিকে ব্যাপকভাবে ব্যবহার করার পরিকল্পনা নিয়ে ফেলেছেন মোদি-শাহ ব্রিগেড৷ গত নির্বাচনে যা দেখা গিয়েছিল এবার বিষয়টিকে ভাবা হয়েছে আরও বড় আকারে৷ এই কৌশলে মূল টার্গেট করা হয়েছে স্মার্টফোন ব্যবহারকারী ভোটারদের৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে