২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বৃষ্টি থেকে বাঁচতে একটি গাছের নিচে আশ্রয় নিয়েছিল। কিন্তু, সেখানে যে বিপদ ওঁত পেতে বসে আছে তা ঘুণাক্ষরেও জানতে পারিনি কেউ। আচমকা বৃষ্টির মাঝে প্রবল বজ্রপাতের জেরে মৃত্যু হল ৮টি শিশুর। শুক্রবার দুপুরে মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বিহারের নওয়াদা এলাকার ধনাপুর গ্রামে।

[আরও পড়ুন- ‘আজকের মধ্যে আস্থা ভোট করুন’, কুমারস্বামীকে ফের চিঠি রাজ্যপালের]

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার দুপুরে ধনাপুর গ্রামের বেশকিছু শিশু স্থানীয় একটি মাঠে খেলাধুলো করছিল। আশপাশে স্থানীয়রা অনেকে বসেও ছিলেন সেসময় হঠাৎ প্রবল বৃষ্টি শুরু হয়। এর থেকে বাঁচতে সবাই দৌড়ে গিয়ে একটি গাছের তলায় আশ্রয় নেয়। কিছুক্ষণ বাদে আচমকা একটি বাজ পড়ে ওই গাছের উপর। এর জেরে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ৮ শিশুর। জখম হয়েছে আরও একাধিক শিশু। তাদের সবাইকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা সংকটজনক।

এই ঘটনার কথা জানতে পেরে মৃতদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। পাশাপাশি মৃতদের পরিবারপিছু চার লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্য দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন তিনি। আহতদের চিকিৎসার খরচও রাজ্য সরকার বহন করবে বলে জানিয়েছেন। যদিও মৃতদের পরিবারপিছু ২০ লক্ষ টাকা করে আর্থিক অনুদান দেওয়ার দাবি জানিয়েছে বিরোধীদের কেউ কেউ।

[আরও পড়ুন-উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মন্ত্রী আজম খান জমি মাফিয়া, ঘোষণা যোগী প্রশাসনের]

বিহারে বজ্রপাতের জেরে মৃত্যুর নতুন ঘটনা নয়। এর আগেও একাধিকবার এই ধরনের মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু, শুক্রবার আচমকা যেভাবে আটটি শিশুর মৃত্যু হল তাতে বাক্যহারা হয়ে পড়েছেন ধনাপুর গ্রামের মানুষ। বৃষ্টির হাত থেকে বাঁচতে গিয়ে মৃত্যুর ফাঁদে পড়ার এই ঘটনায় অনেকেই বিপদের আশঙ্কায় কাঁটা৷ 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং