২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৩ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বিহার ভোটের আগে মোদি-নীতীশের ‘প্রশংসা’ কানহাইয়া কুমারের গলায়! ব্যাপারটা কী?

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 3, 2020 10:29 am|    Updated: October 3, 2020 2:47 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কানহাইয়া কুমার (Kanhaiya Kumar )। বামপন্থীদের ‘পোস্টার বয়’। বিহারে সিপিআইয়ের প্রধান মুখ। অথচ, সেই কানহাইয়া কুমারের মুখেই এবার শোনা গেল মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির একাধিক পদক্ষেপের প্রশংসা। যা শুনে অনেকে ভাবতে শুরু করেছেন, তাহলে কি বিহার নির্বাচনের (Bihar Election 2020) আগে নতুন কোনও সমীকরণ, নতুন কোনও রাজনৈতিক মেলবন্ধনের ইঙ্গিত? কারণ, বেশ কিছুদিন ধরেই জাতীয় বা স্থানীয় কোনও ইস্যুতে আগের মতো সরব হতে দেখা যায়নি কানহাইয়াকে। এমনকী একসময়ের বন্ধু উমর খালিদের গ্রেপ্তারি নিয়েও সেভাবে রা কাটেননি সিপিআই নেতা। এর মধ্যেই আবার মোদি নীতীশের প্রশংসা! সুতরাং জল্পনা ছড়ানোই স্বাভাবিক।

যদিও, কানহাইয়ার শুক্রবারের বক্তব্যে জল্পনার কোনও অবকাশ নেই। আসলে, শুক্রবার এক ইউটিউব চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কানহাইয়া দাবি করেন, তিনি বিহারের বুকে সততার সঙ্গে রাজনীতি করতে চান। অন্য রাজনৈতিক নেতাদের মতো অন্ধ বিরোধিতা বা অন্ধ সমর্থন কোনওটাই করতে চান না। তারপরই সঞ্চালক প্রশ্ন করে বসেন, তাহলে নীতীশ কুমার এবং নরেন্দ্র মোদি প্রসঙ্গে আপনার অভিমত কী? তাঁদের ভাল গুণ কী কী? কানহাইয়া ‘সততা’র সঙ্গে সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন। আর তাতেই যত জল্পনা কল্পনা।

[আরও পড়ুন: টলাতে পারেনি পুলিশি বাধা! আজ ফের হাথরাসের পথে রাহুল, যেতে পারেন অখিলেশও]

নীতীশ প্রসঙ্গে সিপিআই নেতা বলেন,”মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নীতীশ কুমার (Nitish Kumar) অনেক ভাল কাজ করেছেন। আবার অনেক ব্যর্থতাও আছে। নীতীশ প্রথমে মুখ্যমন্ত্রী হয়ে এসে এমন অনেক উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন, যার প্রশংসা গোটা বিশ্ব করেছে। মহিলাদের সংরক্ষণ, সাইকেল বিলি, পরিকাঠামোগত উন্নয়ন, নিরপেক্ষভাবে বিচার করলে এই পদক্ষেপগুলির প্রশংসা করতেই হবে। শুধু তাই নয়, মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে প্রথম দু’বার রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতিও নিয়ন্ত্রণে রেখেছিলেন নীতীশ।” মোদি প্রসঙ্গে কানহাইয়ার বক্তব্য, “মোদির রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা, আর সাফল্য নিয়ে প্রশ্ন নেই। তিনি যেভাবে সরকারি প্রকল্পগুলি সাধারণ মানুষের সামনে তুলে ধরেন সেটাও প্রশংসনীয়। কেউ বেটি পড়াও-বেটি বাঁচাও প্রকল্পের বিরোধিতা করতে পারবে না। কেউ ডিজিটাল ইন্ডিয়ার বিরোধিতা করতে পারবে না।” কানহাইয়ার দাবি, মোদি (Narendra Modi) প্রকল্পগুলি বাস্তবায়ন করতে না পারলেও, এগুলি ভালভাবে তুলে ধরেন মানুষের সামনে। আর এটা প্রশংসাযোগ্য।

প্রধানমন্ত্রী এবং বিহারের মুখ্যমন্ত্রীর এই সাফল্যগুলি তুলে ধরার পরই বহু ইস্যুতে তাঁদের দুর্বলতা জনসমক্ষে আনার চেষ্টা করেছেন কানহাইয়া। তাঁদের খামতিগুলিও তুলে ধরেছেন। তবে, বিহারে ভোটের মুখে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে কিন্তু তাঁর সেই প্রশংসাগুলিই।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement