Advertisement
Advertisement

ত্রিপুরায় বিজেপির চমক, বাংলা-সহ একাধিক ভাষায় হবে শপথ অনুষ্ঠান

প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে শপথ নেবেন বিজেপি সরকারের মন্ত্রীরা।

Biplab Deb to take oath as Tripura chief minister on Friday
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:March 8, 2018 7:13 pm
  • Updated:September 13, 2019 2:50 pm

দীপঙ্কর মণ্ডল: প্রথম বিজেপি সরকারের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানকে ঘিরে সাজো সাজো রব ত্রিপুরায়।  মুখ্যমন্ত্রীর পদে শপথ নেবেন ত্রিপুরার তরুণ বিজেপি নেতা বিপ্লব দেব। উপমুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু দেববর্মা। শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি স্বয়ং। থাকবেন একাধিক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বিজেপিশাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান যোগ দিতে আগরতলা যাচ্ছেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও মুকুল রায়। ‘সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল’-কে ত্রিপুরার ভাবী উপমুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু দেববর্মা জানিয়েছেন, বাংলা-সহ বেশ কয়েকটি ভাষায় শপথ নেবেন মুখ্যমন্ত্রী-সহ অন্যন্য মন্ত্রীরা। সকলেরই পরনে থাকবে কুর্তা-পায়জামা ও ত্রিপুরায় চিরাচরিত উত্তরীয়।

[মহিলাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারের শাস্তি ফাঁসি, নারী দিবসে সওয়াল শিবরাজের]

Advertisement

শুক্রবার আগরতলায় প্রথম বিজেপি সরকারের শপথগ্রহ অনুষ্ঠানে আয়োজনের কোনও খামতি নেই। রাজ্য সরকারের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে হাজির থাকবেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। থাকবেন কেন্দ্রীয় সরকারের একাধিক মন্ত্রী। ত্রিপুরা বাদে এখন দেশের ১৯টি রাজ্যে ক্ষমতায় বিজেপি। শুক্রবারের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে বিজেপিশাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আসার বিষয়ে সম্মতি জানিয়েছেন ১২ জন মুখ্যমন্ত্রী। এ রাজ্য থেকে আগরতলা যাচ্ছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও মুকুল রায়। শপথ নেওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে বৃহস্পতিবার ‘সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল’-কে ত্রিপুরার ভাবী উপমুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু দেববর্মা জানিয়েছেন, বাংলা-সহ বেশ কয়েকটি ভাষায় শপথ নেবেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব-সহ মন্ত্রিসভার সদস্যরা। সকলেরই পরনে থাকবে কুর্তা-পাজামা ও ত্রিপুরায় চিরাচরিত উত্তরীয়।দীর্ঘদিনে রীতি ভেঙে এবার প্রথম খোলা মাঠে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান হবে। আগরতলায় অসম রাইফেলসের মাঠে হবে অনুষ্ঠান। ইতিমধ্যেই বিমানবন্দর থেকে অনুষ্ঠানস্থল পর্যন্ত রাস্তার দুই ধারে বাঁশের ব্যারিকেড করে দিয়েছে পুলিশ। শহরের ১৪ থানা এলাকায় বৃহস্পতিবার রাত ৮ থেকে আগামী বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত জারি থাকবে জারি থাকবে বিশেষ সতর্কতা।

Advertisement

[মূর্তি ভাঙার রাজনীতি অব্যাহত, এবার কেরলে ক্ষতিগ্রস্ত মহাত্মা গান্ধীর মুখাবয়ব]

একের পর এক উপনির্বাচনে হার তো ছিলই, গুজরাটে বিধানসভা ভোটেও বিজেপিকে রীতিমতো বেগ দিয়েছে কংগ্রেস। মোদির রাজ্যে কোনওমতে গড়রক্ষা করেছে পদ্মশিবির। ত্রিপুরায় বিধানসভা নির্বাচন কার্যত অগ্নিপরীক্ষা ছিল অমিত শাহ ও নরেন্দ্র মোদির জুটির। সেই পরীক্ষায় সসম্মানে উত্তীর্ণ হওয়াই শুধু নয়, আড়াই দশকের বামশাসনের অবসান ঘটিয়ে বাঙালি অধ্যুষিত এই রাজ্যে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে বিজেপি।

[‘ছেলেরা পরনের জিনসই সামলাতে পারে না, বোনকে কী করে রক্ষা করবে?’

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ