BREAKING NEWS

১ কার্তিক  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মোদির উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি ভুলে গিয়েছিল দল, সমালোচনা বিজেপি সাংসদের

Published by: Utsab Roy Chowdhury |    Posted: December 11, 2018 9:04 pm|    Updated: December 11, 2018 9:04 pm

BJP forgot the development issue

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির গোহারা পরাজয়ে রাম মন্দির ইস্যু, জিএসটি ও নোটবন্দিকে দায়ি করলেন বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ সঞ্জয় কাকাদে। মধ্যপ্রদেশে টানটান লড়াই করেও কংগ্রেসকে আটকাতে পারেনি বিজেপি। এদিকে রাজস্থানে অন্তর্দ্বন্দ্ব ও একাধিক ইস্যুতে অধিকাংশ আসন হাতছাড়া হয়েছে। ছত্তিশগড়েও কংগ্রেসকে আটকাতে পারেনি বিজেপি। তবে উন্নতির থেকে রাম মন্দির বা জিএসটি ও নোটবন্দির মতো অর্থনৈতিক ইস্যুগুলোই কাল হল বলে মনে করছে বিজেপির এই সাংসদ।

[দোষী সাব্যস্ত হায়দরাবাদ বিস্ফোরণ কাণ্ডের মূল চক্রী শেখ নইম]

আজ তিন রাজ্যে বিজেপির ভরাডুবির পর কাকাদে বলেন, “আমার মনে হয়, ২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যে উন্নতির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তার কথা ভুলে মূর্তি, নাম বদল, রাম মন্দিরের মতো ইস্যুগুলোতে বেশি জোর দিয়েছিল।” লোকসভার আগে এই ফল কংগ্রেসের কাছে আত্মবিশ্বাসের কাজ করবে। মানছেন কংগ্রেসের তাবড় তাবড় নেতারাও। আর লোকসভার আগে বিজেপির এই জঘন্য হার যে মানসিকভাবে নরেন্দ্র মোদিকে চাপে রাখবে, সেটা বলাই যায়। রাজনৈতিক মহলের মতে, ছত্তিশগড়, রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেস সরকার গড়লে লোকসভা ভোটে বিরোধী মহাজোটেও বড় দাবি করতে পারবে। আরএসএস ও ভিএইচপি-র কট্টরপন্থী মনোভাবকেও এই হারের জন্য দায়ি বলে মনে করছেন বিজেপি সাংসদ কাকাদে। কৃষকরা যখন ঋণ মেটাতে পারছেন না, তখন তিন হাজার কোটি টাকা খরচ করে বল্লভ ভাই প্যাটেলের মূর্তি নির্মাণ করেছে দল। সেটাকেও ভালভাবে নেয়নি দেশের মানুষ। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের কথাও উল্লেখ করেছেন কাকাদে। মুঘলসরাই বা এলাহাবাদের মতো ঐতিহাসিক স্থানের নাম পরিবর্তন হয়েছে আদিত্যনাথের নির্দেশেই। তাঁকে বিধানসভার প্রচারে আনাকেও ভাল চোখে দেখেনি রাজ্যের মানুষ।

[রিজার্ভ ব্যাংকের নতুন গভর্নর হলেন শক্তিকান্ত দাস]

রাজ্যসভায় মহারাষ্ট্রের বিজেপি সদস্য কাকাদে। গতবছর গুজরাত নির্বাচনেও বিজেপির খারাপ ফলাফলের ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন। জয়ের পর তাঁকে দলের পক্ষ থেকে বিবৃতির জন্য ক্ষমা চাইতে বাধ্য করা হয়। তিনি জানান, তাঁর মন্তব্যে মোদির ক্যারিশমা কমে যাবে না। তবে নোটবন্দি, জিএসটি-র মতো ইস্যু বিজেপিকে চাপে ফেলেছে, সেটা মেনে নিচ্ছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। এদিকে রাফায়েল চুক্তি সামনে আসায় মুখ পুড়েছে মোদি সরকারের। তারপর হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলোর রাম মন্দির নিয়ে চাপ ও যোগী আদিত্যনাথের নামবদল। সব মিলিয়ে এবার বিধানসভা নির্বাচনের গোবলয়ে কার্যত কোণঠাসা বিজেপি। এদিন নির্বাচনের ফলাফলের আঁচ দেখে তেমনই জানালেন মহারাষ্ট্রের রাজ্যসভার সাংসদ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement