BREAKING NEWS

২৪  মাঘ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

‘৫ জনকে পিটিয়ে মেরেছি’, প্রকাশ্যে ক্যামেরায় আস্ফালন বিজেপি নেতার, তোপ কংগ্রেসের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: August 20, 2022 9:39 pm|    Updated: August 20, 2022 9:39 pm

BJP leader caught on tape admitting ‘lynching’ | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গণপিটুনি দিয়ে ৫ মুসলিমকে মেরেছেন। প্রকাশ্যে ক্যামেরার সামনে রীতিমতো আস্ফালন দেখালেন রাজস্থানের আলওয়ারের বিজেপি (BJP) নেতা। সেই আলওয়ার, যেখানে গত কয়েক বছরে গোরক্ষার নামে একাধিক গণপিটুনির ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে। সেখানেই প্রকাশ্যে খুনের হুমকি দিলেন বিজেপির এই বাহুবলি নেতা। সেই ভিডিও টুইটারে শেয়ার করে গেরুয়া শিবিরকে তীব্র আক্রমণ শানালেন সেরাজ্যের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি গোবিন্দ সিং ডোতাসরা (Govind Singh Dotasra)।

রাজস্থান প্রদেশ কংগ্রেস (Congress) সভাপতির শেয়ার করা ভিডিওতে বিজেপির প্রাক্তন বিধায়ক জ্ঞানদেব আহুজাকে বলতে শোনা গিয়েছে, “এতদিন পর্যন্ত আমরা ৫ জনকে পিটিয়ে মেরেছি। এই প্রথমবার ওরা আমাদের মারল। আমি তো কর্মীদের পুরোপুরি ছাড় দিয়ে রেখেছি। তোমরা মারো। জামিন করানোর দায়িত্ব আমার।” আসলে গত রবিবার ওই এলাকায় চিরঞ্জিলাল সাইনি নামের এক হিন্দু যুবককে চুরির অভিযোগে গণপিটুনি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছি মেব মুসলিমদের বিরুদ্ধে।

[আরও পড়ুন: অনলাইনে বিক্রি হচ্ছে রাধাকৃষ্ণের ‘অশ্লীল’ ছবি, নেটদুনিয়ায় ট্রেন্ডিং ‘বয়কট আমাজন’]

সেই ঘটনার প্রতিবাদে ওই এলাকায় উচ্চবর্ণের হিন্দুরা একটি ঘরোয়া সভার আয়োজন করে। সেই সভাতেই জ্ঞানদেব আহুজা ওই গণপিটুনির কথা বলেছেন। ভিডিওটি শেয়ার করে গোবিন্দ সিং ডোতাসরা বলছেন, “এটাই বিজেপির আসল চেহারা। আসলে ওরা ধর্মের নামে সন্ত্রাস আর গুন্ডামি করে। এটাই তার যথেষ্ট প্রমাণ।” দল হিসাবে বিজেপিও জ্ঞানদেবের এই মন্তব্যকে সমর্থন করেনি। বিজেপির আলওয়ারের (Alwar) জেলা সভাপতি জানিয়েছেন, “এগুলি আহুজার ব্যক্তিগত মত। দল এই ধরনের মন্তব্য সমর্থন করে না।” যদিও পরে যোগাযোগ করা হলে অভিযুক্ত আহুজা নিজের মন্তব্যে অনড় থাকেন। তাঁর সাফ কথা, যারাই গোমাংস বিক্রি বা গরু পাচারের সঙ্গে যুক্ত থাকবে, তাদের সবাইকে মরতে হবে।

[আরও পড়ুন: ‘ফের ২৬/১১-এর মতো হামলা হবে’, হুমকি এল পাকিস্তান থেকে, তীব্র আতঙ্ক মুম্বই জুড়ে]

উল্লেখ্য, এই রাজস্থানের আলওয়ার সেরাজ্যে বিজেপির সরকার থাকাকালীন গোরক্ষকদের আখড়া হয়ে উঠেছিল। পেহেলু খানের মতো একাধিক মেব মুসলিমকে (Mev Muslim) গোরক্ষকদের হাতে প্রহৃত হতে হয়। কারও কারও প্রাণও গিয়েছে। সেসব ঘটনার নেপথ্যে আহুজার মতো নেতাদের ইন্ধন ছিল বলেই স্পষ্ট ইঙ্গিত মিলছে তাঁর বক্তব্যে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে