BREAKING NEWS

১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘রেল ও ব্যাংকের বেসরকারিকরণ হলে বেকার হবেন ৫ লক্ষ মানুষ’, ফের বিস্ফোরক বরুণ গান্ধী

Published by: Biswadip Dey |    Posted: February 23, 2022 1:36 pm|    Updated: February 23, 2022 1:36 pm

BJP MP Varun Gandhi attacks centre on privatisation of banks and railways। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি দল ছাড়তে পারেন। এই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে গত কয়েক মাস ধরেই। BJP সাংসদ বরুণ গান্ধীকে (Varun Gandhi) মাঝে মাঝেই বেসুরো হতে দেখা গিয়েছে এই সময়ে। এর মধ্যে ফের কেন্দ্র তথা বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগতে দেখা গেল তাঁকে। তিনি দাবি করলেন, ব্যাংক (Bank sector) ও রেলের (Indian Railways) বেসরকারিকরণ হলে পাঁচ লক্ষ মানুষের চাকরি যাবে। তাঁর এই মন্তব্য ঘিরে তোলপাড় রাজনৈতিক মহল।

ঠিক কী লিখেছেন বরুণ? তিনি টুইটারে লিখেছেন, ”কেবল ব্যাংক ও রেলের বেসরকারিকরণ হলে ৫ লক্ষ কর্মচারী বেকার হয়ে যাবেন। লক্ষ লক্ষ চাকরি নষ্ট হলে সেই সঙ্গে লক্ষ লক্ষ পরিবারেরও স্বপ্নভঙ্গ হয়। এভাবে কোনও ‘জনদরদি সরকার’ই সামাজিক স্তরে আর্থিক বৈষম্য তৈরি করে কখনওই পুঁজিবাদের পৃষ্ঠপোষকতা করতে পারে না।”

[আরও পড়ুন: অভিনব প্রতিবাদ! যোগী আদিত্যনাথের সভার মাঠে কয়েকশো গরু ছেড়ে দিলেন কৃষকরা]

 

উত্তরপ্রদেশে চলছে ভোট। বুধবার যোগীরাজ্যে চতুর্থ দফার ভোটগ্রহণ। তার ঠিক আগেই বরুণের এমন অভিযোগ যে গেরুয়া শিবিরকে অস্বস্তিতে ফেলবে তা বলাই বাহুল্য।
গত কয়েক মাস ধরে এভাবেই বারবার মোদি সরকারকে আক্রমণ করতে দেখা গিয়েছিল বরুণকে। কয়েক দিন আগেই বিজয় মালিয়া থেকে ঋষি আগরওয়াল, একের পর এক দেশ ছেড়ে পালানো শিল্পপতিদের সম্পর্কে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন তিনি। সেই সঙ্গে ঋণের বোঝায় দেশে আত্মহত্যার সংখ্যা বাড়ছে বলেও দাবি করেন তিনি। বলেন, একটি মজবুত সরকারের উচিত মজবুত পদক্ষেপ করে এই সমস্যার সমাধান করা।

গত নভেম্বরে কৃষি আইন প্রত্যাহারের ঘোষণার পরে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে লেখা খোলা চিঠিতেও বরুণ জানিয়েছিলেন, ”আগেই যদি এই সিদ্ধান্ত নিতেন, তবে এতগুলো নিরীহ প্রাণ যেত না।” লখিমপুরের আন্দোলনকারী কৃষকদের মর্মান্তিক মৃত্যু নিয়েও সরব হয়েছিলেন তিনি। সেই সময় বিজেপি সাসংদ টুইট করেছিলেন, ”লখিমপুর খেরিকে হিন্দু বনাম শিখ যুদ্ধক্ষেত্রে পরিণত করার চেষ্টা করা হচ্ছে।” এভাবেই এমন ধরনের মন্তব্যের অভিঘাতে ক্রমেই দলীয় শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে দূরত্ব বাড়ছে বরুণের।

[আরও পড়ুন: ফের ঊর্ধ্বমুখী দেশের করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু, চিন্তায় রাখছে মহারাষ্ট্রের কোভিড গ্রাফ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে